• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]সারাদেশে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেবাকেন্দ্র থেকে স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বেচ্ছাসেবীদের সহযোগিতায় যে কেউ ভ্যাকসিনের নিবন্ধন করতে পারবেন, জানালেন ডা. মুশতাক হোসেন


[১]সারাদেশে ইউনিয়ন ডিজিটাল সেবাকেন্দ্র থেকে স্বাস্থ্যকর্মী ও স্বেচ্ছাসেবীদের সহযোগিতায় যে কেউ ভ্যাকসিনের নিবন্ধন করতে পারবেন, জানালেন ডা. মুশতাক হোসেন

আমাদের নতুন সময় : 20/01/2021

ভূঁইয়া আশিক : [২] আইইডিসিআরের অন্যতম এই উপদেষ্টা আরও বলেন, করোনা ভ্যাকসিন প্রথমে সর্বস্তরের স্বাস্থ্যকর্মীদের দেওয়া হবে। তারপর সরকারি তালিকা অনুযায়ী অন্যরাও পাবেন। নিরাপত্তা বাহিনী নিজেদের হাসপাতালেই করোনা ভ্যাকসিন নিতে পারবে। এক সপ্তাহ সব স্বাস্থ্যকর্মীকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, আরেক সপ্তাহ পর্যবেক্ষণ করা হবে। কোনও পাশর্^প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় কিনা তা পর্যবেক্ষণ করা হবে।
[৩] ভ্যাকসিন সেবা নিতে হলে অনলাইনে নিবন্ধন করতেই হবে। নিবন্ধন ছাড়া গ্রহিতাকে হিসাবের আওতায় আনা যাবে না।
[৪] ডিজিটাল সেবা কেন্দ্রে গিয়ে ভ্যাকসিন সেবা গ্রহণ করার বিষয়ে মানুষকে অবগত করার জন্য স্বেচ্ছাসেবী ও স্বাস্থ্যকর্মীরা শিগগিরই মাঠে নামবেন। অনেক এনজিও এগিয়ে আসছে ভ্যাকসিন নিবন্ধন ও কার্যক্রমের সহযোগিতায়। সকলে মিলেই ভ্যাকসিন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে। [৫] নিবন্ধন কার্যক্রম শুরুর আগে বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে এবং অ্যাপও চালু করা হবে। স্বাস্থ্যকর্মীদের অ্যাপে নিবন্ধন করতে হবে না। কারণ প্রত্যেক স্বাস্থ্যকর্মী নিজেদের প্রতিষ্ঠানে ইতোমধ্যে নিবন্ধিত হচ্ছেন।
[৬] স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে নিবন্ধন কার্যক্রম চলবে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্যসচিব সমন্বয়ক করছেন ভ্যাকসিন সংশ্লিষ্ট সবকিছু। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটা উপদেষ্টামণ্ডলীর কমিটিও আছে। সম্পাদনা: রায়হান রাজীব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]