• প্রচ্ছদ » » মিডিয়া পর্যবেক্ষণ : দেশের সংবাদ মাধ্যমগুলো রাষ্ট্রব্যবস্থার অংশ না হয়ে সরকার ব্যবস্থার অংশ হিসেবে কাজ করে


মিডিয়া পর্যবেক্ষণ : দেশের সংবাদ মাধ্যমগুলো রাষ্ট্রব্যবস্থার অংশ না হয়ে সরকার ব্যবস্থার অংশ হিসেবে কাজ করে

আমাদের নতুন সময় : 21/01/2021

মাহবুব মোর্শেদ : পুরনো চিন্তায় বলা হতো গণমাধ্যম। এখন বলা হয় সংবাদ মাধ্যম। তো এই সংবাদ মাধ্যম প্রধানত স্ট্যাবলিশমেন্টের অংশ। ক্ল্যাসিকাল অর্থে সংবাদ মাধ্যম রাষ্ট্রের অংশ। একটি আধুনিক রাষ্ট্রে সরকার, বিচার বিভাগ, সংসদ, নির্বাহী বিভাগ, বিরোধী দল, স্থানীয় সরকার-সহ নানা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান থাকে। পাশাপাশি সিভিল সোসাইটির নানা প্রতিষ্ঠানও থাকে। ব্যবসায়িক নানা গোষ্ঠী ও কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান থাকে। আরও নানা কিছুর মধ্যে আধুনিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে সংবাদ মাধ্যমের অবস্থান সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছাকাছি। কারণ পুরো স্ট্যাবলিশমেন্ট একটা কার্যকর যোগাযোগ ব্যবস্থার মধ্যদিয়ে টিকে থাকে। তথ্য শুধু নাগরিকদের দরকার পড়ে না। সরকারেরও পড়ে। মূলত সরকার ও নাগরিকরা সংবাদ মাধ্যমের মারফত তথ্য বিনিময় করে। সংবাদ মাধ্যম শুধু তথ্য ফাঁস করে না। সরকার, কর্পোরেট ও ক্ষমতাধররা যে তথ্য জানাতে চায় তা জানায় এবং যা জানাতে চায় না তা গোপনও করে। ফলে, কার্যকর সংবাদ ব্যবস্থা শাসকগোষ্ঠীর জন্যই দরকারি। তদুপরি সংবাদ মাধ্যম একই সঙ্গে একটা বিনিয়োগ, ব্যবসা, বিজ্ঞাপন ও বিপণন ব্যবস্থাও। কোনো না কোনো ব্যবসায়িক গোষ্ঠীর মাধ্যমে এটি সক্রিয় থাকে। ফলে, একটা বৃহৎ পুঁজি ও পুঁজি ব্যবস্থার সঙ্গে এর সংযোগ থাকে। ফলে এর পক্ষে স্ট্যাবলিশমেন্টের বিপরীতে থাকা সম্ভব নয়। তবু যে সংবাদ মাধ্যমকে সাধারণত খানিকটা বিপরীতধর্মী প্রতিষ্ঠান বলে মনে হয়, এটা একটা মধুর বিভ্রম ছাড়া কিছুই নয়। পেশাদারিত্ব ও সিরিয়াসনেস এই বিভ্রম তৈরি করে। সারা পৃথিবীতেই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাতেও সংবাদপত্রের মাধ্যমে স্বাধীন বুদ্ধিজীবীতা করা অসম্ভব। কেননা এটা বিদ্যমান ব্যবস্থাকে টিকিয়ে রাখার স্বার্থে ভিন্নমত ও বিপজ্জনক মতামতকে খেয়ে দেবার কাজটি খুব দক্ষতার সঙ্গে করে। আমাদের দেশে অধিকাংশ ক্ষেত্রে সংবাদ মাধ্যমগুলো রাষ্ট্রব্যবস্থার অংশ না হয়ে সরকার ব্যবস্থার অংশ হিসেবে কাজ করে। ফলে, রাষ্ট্র ব্যবস্থার বদলে সরকার ব্যবস্থাকেই টিকিয়ে রাখার কাজ করে। এখানে স্বাধীন বুদ্ধিজীবীতা তো সম্ভব নয়ই। এমনকি রাজনৈতিকভাবে খানিকটা ভিন্নমত চর্চা করাও কঠিন। স্ট্যাবলিশমেন্টের পক্ষে আপনাকে থাকতে হবে, তদুপরি দলীয় হতে হবে। আপনি যতোই প্রতিভাবান হন না কেন। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]