• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]দেশে অনেক পত্রিকা আছে নিয়মিত বের হয় না, যেদিন ক্রোড়পত্র বা বিজ্ঞাপন পায় সেদিন বের হয় [২]অনিয়মিত বের হওয়া পত্রিকাতো দৈনিক পত্রিকা হতে পারে না, যে পত্রিকাগুলো নিয়মিত বের হয় তাদের স্বার্থের বিরুদ্ধে [৩]সংবাদপত্রের প্রচার সংখ্যা তদন্ত করা হবে: তথ্যমন্ত্রী


[১]দেশে অনেক পত্রিকা আছে নিয়মিত বের হয় না, যেদিন ক্রোড়পত্র বা বিজ্ঞাপন পায় সেদিন বের হয় [২]অনিয়মিত বের হওয়া পত্রিকাতো দৈনিক পত্রিকা হতে পারে না, যে পত্রিকাগুলো নিয়মিত বের হয় তাদের স্বার্থের বিরুদ্ধে [৩]সংবাদপত্রের প্রচার সংখ্যা তদন্ত করা হবে: তথ্যমন্ত্রী

আমাদের নতুন সময় : 22/01/2021

তাপসী রাবেয়া: [৪] ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, ডিএফপির (চলচ্চিত্র ও প্রকাশনা অধিদপ্তর) তদন্তের বাইরেও সরকারি তদন্ত সংস্থা দিয়ে তদন্ত করানোর কাজ হাতে নিয়েছি। ডিএফপির তালিকাভুক্ত প্রথম ১০০টি পত্রিকা প্রথম তদন্ত করা হবে, এরপর বাকি ১০০ করে, এভাবে তদন্ত করা হবে। এরপর বোঝা যাবে আসলে প্রচার সংখ্যা কত। [৫] বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে বাংলাদেশ সংবাদপত্র ফোরামের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।
[৬] তথ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের শুরুতে ফোরামের পক্ষ থেকে নাম সর্বস্ব ও অনিয়মিত পত্রিকায় সরকারি বিজ্ঞাপন ও ক্রোড়পত্র দেওয়া বন্ধ করে তাদের মিডিয়া তালিকাভুক্তি বাতিল করার দাবি জানানো হয়।
[৭] হাছান মাহমুদ বলেন, সরকারি বিজ্ঞাপনের পরিমাণের সংখ্যা বাড়ানোর বিষয়েও পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সরকারি বিজ্ঞাপনের বিল বিজ্ঞাপন প্রকাশের ছয় মাসের মধ্যে পাওয়া উচিত জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সব মন্ত্রণালয়কে চিঠি দেওয়া হয়েছে।
[৮] ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়ন বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, অত্যন্ত দুঃখজনক হলেও সত্য যে নবম ওয়েজবোর্ড কোনো পত্রিকা বাস্তবায়ন করেনি।
[৯] ফোরামের উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম রতন এবং সদস্য সচিব ফারুক আহমেদ তালুকদারের নেতৃত্বে সংগঠনের নেতারা তথ্যমন্ত্রী এবং তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানের সঙ্গে বৈঠক করেন। সম্পাদনা: শাহানুজ্জামান টিটু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]