• প্রচ্ছদ » » আওয়ামী লীগের সমস্যা হলো যেকোনো ইস্যুতে যে কেউ তাদের সমালোচনা করলে তাকে তৎক্ষণাৎ শত্রæর কাতারে ফেলে দেয়!


আওয়ামী লীগের সমস্যা হলো যেকোনো ইস্যুতে যে কেউ তাদের সমালোচনা করলে তাকে তৎক্ষণাৎ শত্রæর কাতারে ফেলে দেয়!

আমাদের নতুন সময় : 23/01/2021

অনির্বাণ আরিফ : আওয়ামী লীগ অনলাইনে তাদের উপস্থিতি বাড়াতে একলাখ সাইবার যোদ্ধা তৈরি করার ঘোষণা দিয়েছে। এ খবরটি পড়ে আমার তলপেট থেকে ভীষণ হাসি পেলো, উপরের পেট থেকে চরম মজা আসলো, আর বুক থেকে বের হলো ইশকে ইশক জাতীয় কিছু শব্দ। জামায়াতে ইসলামি আজ থেকে এক যুগ আগেই তারা তাদের অনলাইন যুদ্ধ শুরু করেছে দলীয়ভাবে। কিন্তু আওয়ামী লীগের মতো এমন কোনো ঘোষণা দিয়ে নয়, নীরবে। বিএনপির যেহেতু নিজস্ব সত্তা বা মেরুদÐ নেই, তাই তারা জামাতিদের ছাঁয়াতেই জামাতিদের পক্ষে থেকেছে। আর বামরা বিবেকবোধ থেকেই অনলাইনে সব সময় সক্রিয় থেকেছে। আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রাচীন, ঐতিহ্যবাহী এমনকি উপমহাদেশেরও একটি প্রাচীন দলও। অনলাইন রাজনীতি শুরু হয়েছে এদেশে এক যুগ আগে। অথচ আওয়ামী লীগের নিদ্রা নাকি কেবল ভাঙলো।
ফেসবুকের বাংলাদেশে যে অথরিটি বসিয়েছি তারা কিছু বায়বীয় এবং আজগুবি কারণ দেখিয়ে সবগুলো লিবারেল আইডি হয় ডাউন করে দিচ্ছে না হয় ব্যান করে দিচ্ছে, কিন্তু তারা গুরুতর কোনো অভিযোগ পেলেও কখনো কোনো এক্সিমিস্টদের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের পানিশমেন্ট নিচ্ছে না। এটা কেন করা হচ্ছেÑ এ বিষয়ে সরকার কিংবা সরকার দল আওয়ামী লীগ কখনো ভেবেছে, ভাবেনি। আমি আমার ব্যক্তিগত পর্যবেক্ষণ থেকে যতোদূর জানি লিবারেল চিন্তার আটানব্বই শতাংশ মানুষ এখনো নেতা হিসেবে বঙ্গবন্ধুকে ধারণ করে, দল হিসেবে মন্দের ভালো বিবেচনায় আওয়ামী লীগ সাপোর্ট করে। অথচ আওয়ামী লীগ কখনো দেশের এই প্রগেসিভ অংশটিকে ধারণ করতে পারেনি। আওয়ামী লীগের সমস্যা হলো যেকোনো ইস্যুতে যে কেউ আওয়ামী লীগের সমালোচনা করলে তাকে তৎক্ষণাৎ শত্রæর কাতারে ফেলে দেয়, তাদের পক্ষ থেকে খারিজ করে দেয়। এতে আওয়ামী লীগ শক্তিশালী না হয়ে বরং দুর্বল হয়েছে। একলাখ সাইবার যোদ্ধা তৈরি করে আওয়ামী লীগ কী করবে বুঝে ধরে না। মনে হচ্ছে এসব যোদ্ধারা হবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার মতো একটি ঘটনা ঘটিয়ে শীত কিংবা গরম সবসময় কাথা মুড়িয়ে থাকবে। স্মরণ করে দেওয়া দরকার যে ইতোপূর্বে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ দেওয়া বিশেষ সেই যোদ্ধারা আওয়ামী লীগের কোনো সংকটকালে তাদের কোথাও লণ্ঠন ভেঙে খুঁজলেও পাওয়া যায়নি। আওয়ামী লীগের একলাখ সাইবার যোদ্ধা নিয়ে আর বেশি কিছু বলা ঠিক হবে না পাছে আমি নব্য লীগারদের কাছে ‘বকরিদের পীর’ খেতাব পেয়ে যাবো। তবে এটা ঠিক আওয়ামী লীগের অনলাইন থেকে পতন হয়তো তারাই তরান্বিত করবে। কারণ আওয়ামী লীগ চিরকালই গৃহদাহে নিজেদের ঘর পোড়ায়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]