• প্রচ্ছদ » » শুধু হিন্দু অধ্যুষিত দেশ হওয়ায় ভারত ভ্যাকসিন দিয়েও খারাপ!


শুধু হিন্দু অধ্যুষিত দেশ হওয়ায় ভারত ভ্যাকসিন দিয়েও খারাপ!

আমাদের নতুন সময় : 23/01/2021

আজম খান : শুধু হিন্দু অধ্যুষিত দেশ হওয়ায় ভারত ভ্যাকসিন দিয়েও খারাপ! ভারতের যে ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের প্রস্তাব নিয়ে এতো কথা সেটা বাংলাদেশ সরকার প্রত্যাখ্যান করেছে বহু আগেই। একই সময়ে চীনও ট্রায়ালের প্রস্তাব দিয়েছিলো সেটাও বাংলাদেশ প্রত্যাখ্যান করেছে। কিছুদিন আগে গুজব ছিলো ভারতের সিরাম কোম্পানিকে বাংলাদেশ ভ্যাকসিন দেবে না। যারা এ গুজবকে নিয়ে ভারতের স্বার্থপরতার দিকে আঙুল উঠিয়েছিলো, ভারত বাংলাদেশের মানুষ নিয়ে একদমই কেয়ার করে না বলে যাচ্ছিলো সেই তারাই এখন গুজব ছড়াচ্ছে ভারতের ভ্যাকসিন নিলে বাংলাদেশিরা মানুষ থেকে বানরে পরিণত হতে পারে। যুগান্তর পত্রিকা নরওয়েতে ২৯ জন ভ্যাকসিন নেওয়াতে মারা গেছে প্রচার করে ভ্যাকসিনবিরোধী প্রচারণায় তাল দিলো। কিন্তু তারা এটা বললো নাÑ যারা মারা গেছে তারা সবাই আগে থেকেই ঘাটের মড়া ছিলো। এই পত্রিকাটা বাংলাদেশের সাংবাদিকতার ইতিহাসে একটা কালো অধ্যায়। দুনিয়ার যতো আজগুবি, মিথ্যা খবর এই পত্রিকাটায় পাবেন। রাজাকার মাওলানা মান্নানের পত্রিকা ইনকিলাবের আগে এই কুখ্যাতি ছিলো। যুগান্তরের গত কয়েক বছরের আমলনামা হিসাব করলে মাওলানা মান্নানও লজ্জ্বা পাবে। আমার আসলে এ মানুষগুলার জন্য খারাপ লাগে। তারা কী আসলে বদমায়েশ নাকি নেহায়েত ঘিলুহীন নির্বোধ আমি নিশ্চিত জানি না। তবে দুইটার একটা তো অবশ্যই হবে। তারা একই সঙ্গে তুর্কি-জার্মান নাগরিকের করোনা ভ্যাকসিনের জন্য তাদের নামের পাশে মুসলিম বিজ্ঞানী লাগিয়ে গর্ব করে। আবার সেই একই জাতের ভ্যাকসিন ভারত থেকে এলে সেটার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালায়। যদিও সেই বিজ্ঞানী দুজনের কেউই কোথাও বলেনি আমরা মুসলমান বা ইসলাম মেনে চলি। একজন বিজ্ঞানী ধর্মবিশ^াসী হলেও তারা কাজ করেন ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবার জন্য। ধর্ম তাদের কাজে কোনো ভ‚মিকাই পালন করে না। এমনকি ব্যক্তিগত জীবনেও কতোটুকু করে সেটা তাদের জীবনচর্চা দেখলেই বুঝা যায়। আজকে একই ভ্যাকসিন তুরস্ক, পাকিস্তান থেকে এলে এটা আল্লাহর নেয়ামত হয়ে যেতো। হিন্দুবিদ্বেষ বাংলাদেশের সমাজে এতোটাই বেশি যে ভ্যাকসিনটাও এখন খারাপ হয়ে গেছে। যা হোক, একটা তথ্য দিয়ে রাখি। বিশেষত বিদেশে যারা পড়াশোনা, চাকরি, ব্যবসা করতে আসবেন তাদের জন্য। সেটা ইউরোপ, আমেরিকা, আরব যেখানেই হোক। একটা জোরদার সম্ভাবনা আছে যে আপনি কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন না নিয়ে থাকলে আপনাকে কোনো দেশেই আর ঢুকতে দেবে না। এটাকে অনেকে কোভিড-১৯ পাসপোর্ট বলেও অভিহিত করছেন। এই পাসপোর্ট না থাকলে ভিসা কোনো দেশই দেবে না,বা দিলেও ইমিগ্রেশনে সন্তোষজনক প্রমাণ না দেখাতে পারলে ফিরতি বিমানে উঠিয়ে দেবে। তারা দেখবে না আপনি ভারতের নাকি সৌদি আরবের বা ইংল্যান্ডের ভ্যাকসিন নিয়েছেন কি-না। তারা দেখবে আপনি একটা কোভিড টিকা নিয়েছেন কি-না। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]