• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]পেঁয়াজ নিয়ে সব ধরনের পদক্ষেপ রয়েছে, দাম বাড়ার কোনো সুযোগ নেই, বললেন টিসিবি চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান


[১]পেঁয়াজ নিয়ে সব ধরনের পদক্ষেপ রয়েছে, দাম বাড়ার কোনো সুযোগ নেই, বললেন টিসিবি চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান

আমাদের নতুন সময় : 24/01/2021

সমীরণ রায়: [২] ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) চেয়ারম্যান আরও বলেন, পেঁয়াজ আমদানি না করলে এই সুযোগ কিছু ব্যবসায়ীরা নেন। তাই বাণিজ্যমন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় টিসিবি পেঁয়াজ সরবরাহ করছে। এতে ব্যবসায়ীরা দাম বাড়ানোর কোনো সুযোগ পাচ্ছে না।
[৩] তিনি বলেন, দেশে প্রতিদিন গড়ে ৬ হাজার মেট্রিক টনের বেশি পেঁয়াজ প্রয়োজন হয়। দেশে যে পেঁয়াজ উৎপাদন হয়, তা দিয়ে ৭ মাস চালানো সম্ভব। আরও ৫ মাস চালাতে হলে অবশ্যই পেঁয়াজ আমদানি করতে হবে। গত ২০১৯ সালে যেখানে পেয়াজের কেজি ছিল ২০০টাকা। টিসিবি যদি ৩০টাকা করে পেঁয়াজ বিক্রি করে তাহলে প্রতিদিন জনগণের ১০২ কোটি টাকার বেশি বেচে যায়। ফলে ৫ মাসে টিসিবি পেঁয়াজ সরবরাহ করায় ১৫ হাজার ৩০০ কোটি টাকার বেশি বেচে যাচ্ছে।
[৪] ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) মিডিয়া মুখপাত্র মো. হুমায়ুন কবির বলেন, গত সেপ্টম্বর থেকে আগামী মার্চ পর্যন্ত ১ লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন বিক্রি করা হবে। মুড়িকাটা পেঁয়াজ উঠে ডিসেম্বর থেকে জানুয়ারির শেষ পর্যন্ত। এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত যে পেঁয়াজ উঠে সেটি দিয়ে দেশের চাহিদা মেটানো সম্ভব নয়।
[৫] তিনি বলেন, সারাদেশে টিসিবির ২৫০০ ডিলারের মাধ্যমেই সারাদেশে পেঁয়াজ বিক্রি হয়। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইলসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে চাল ডাল ডটকম, স্বপ্ন, যাচাই, সবজি বাজার ও মীম গ্রোচারীসহ অনলাইনে ১৮টি প্রতিষ্ঠান পেঁয়াজ বিক্রি করছে। সম্পাদনা: শাহানুজ্জামান টিটু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]