[১]পোশাক কারখানাগুলোর আর্থিক ব্যবস্থাপনা নিম্ন মানের: সিপিডি

আমাদের নতুন সময় : 24/01/2021

নিজস্ব প্রতিবেদক: [২] কোভিড সঙ্কট মোকাবেলায় বড় কারখানাসহ অধিকাংশ কারখানার কোনো আর্থিক ব্যাক-আপ ও পরিকল্পনা নেই। ব্যবসায়িক কার্যক্রমে বড় ধরনের পার্থক্য থাকলেও এক্ষেত্রে বড় ও ছোট কারখানাগুলোর মধ্যে খুব বেশি পার্থক্য নেই। [৩] উপরন্তু কোভিড পরিস্থিতির কারণে বাংলাদেশের পোশাক শিল্প এখন আন্তর্জাতিক বাজারের মূল্য চেইন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি। [৪] এর বিপরীতে পোশাক খাতের ঝুঁকিগুলো চিহ্নিত করা, সহনশীলতা ও পুরুদ্ধারের ক্ষেত্রে যথেষ্ট দুর্বলতা রয়েছে। [৫] এ প্রেক্ষিতে দেশের তৈরি পোশাক খাতের সহনশীলতা বাড়ানো ও দ্রুত পুনরুদ্ধার নিশ্চিত করতে নতুন ধরনের প্রস্তুতি প্রয়োজন বলে মনে করছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা ‘সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগ’। [৬] শনিবার ‘কোভিড-১৯ বিবেচনায় পোশাক খাতে দুর্বলতা, সহনশীলতা ও পুনরুদ্ধার : জরিপের ফলাফল’ শীর্ষক এক ভার্চুয়াল সংলাপে এসব অভিমত তুলে ধরেছে সংস্থাটি। সংলাপে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সংস্থার গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। [৭] প্রতিবেদনে বলা হয়, পোশাক খাতের ভবিষ্যতের বিকাশের জন্য ভ্যালু চেইনের বিভিন্ন বিভাগে আরও বিদেশী সরাসরি বিনিয়োগ (এফডিআই) বিবেচনা করা উচিত। খুব কম সংখ্যক ক্রেতা নির্ভরতা শুধু ছোট শিল্পের ক্ষেত্রেই নয়, বড় আকারের উদ্যোগের জন্যও একটি বড় দুর্বলতা।[৮] প্রতিবেদনে বলা হয়, কোভিডের প্রভাব মোকাবেলায় সরকারের প্রণোদনা ঋণ প্রাপ্তির জটিলতার কারণে বেশীরভাগ ছোট কারখানাগুলো ঋণের জন্য আবেদন করেনি। দেখা যায়, ৯০ শতাংশ বড় কারখানার বিপরীতে মাত্র ৪০ শতাংশ ছোট কারখানা ঋণের জন্য আবেদন করেছে। সম্পাদনা: শাহানুজ্জামান টিটু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]