• প্রচ্ছদ » » আদিবাসীদের মুখের ভাষা শুনে ইয়ার্কি মারা বাঙালিরা কী ‘একুশ মানে মাথা নত না করা’র অর্থ বোঝেন?
পূর্ববর্তী


আদিবাসীদের মুখের ভাষা শুনে ইয়ার্কি মারা বাঙালিরা কী ‘একুশ মানে মাথা নত না করা’র অর্থ বোঝেন?

আমাদের নতুন সময় : 22/02/2021

ইশরাত জাহান উর্মি : আচ্ছা হুমায়ূন আজাদ বাংলাভাষার বর্ণমালাকে ক্যান ‘দুঃখীনি বাংলাভাষা’ বলেছিলেন? বলেছিলেন, ‘তুমি আমারই মতো শ্যামলী রূপসী?’ আদিবাসীদের মুখের ভাষা শুনে ইয়ার্কি মারা বাঙালিরা কী ‘একুশ মানে মাথা নত না করা’র অর্থ বোঝেন? এই ২১ শে ফেব্রæয়ারিতেও কি কার্টুর্নিস্ট কিশোর মুক্তি পেলেন? কারা আমার মুখের ভাষা কাইড়া নিতে চায়? আমাদের অতি আহ্লাদের ‘মায়ের ভাষায়’ বেশ্যা, খানকি, মাদারচোদ, পতিতা, গতরখাকি, ছিনাল ও ছলনাময়ী- এইসব শব্দের পুংলিঙ্গ কি হে গর্বিত বাংলাভাষী বাঙালি? পুরুষেরা উপরের এইগুলা হয় না? মুখরা, ঝগড়াটে, বন্ধ্যা, পোড়ামুখী এসব শব্দের পুংলিঙ্গ? সমাজ যে চোখে নারীকে দেখে ভাষাও সেই রূপেই তৈরি হয়। আমার তাই কোনও কিছুতে আহ্লাদ হয় না। মায়ের ভাষা মায়ের ভাষা কইরা আহ্লাদও আসে না। স্যরি। মাই ব্যাড।
নির্বাচিত মন্তব্য- মোহাম্মদ আনওয়ারুল কবীর : অনেক গালিই নারীবাচক, তবে সংখ্যায় কম হলেও পুরুষবাচক কিছু গালিও আছে যেগুলোর নারীবাচক নেই, যেমন – লুচ্চা, আঁটখুড়া, বদমাস ইত্যাদি। ইংরেজিতেও নারীবাচক অনেক গালি, যেমন বিচ, মাদার-ফাকার ইত্যাদি আছে। এর মূল কারণ, পুরুষতান্ত্রিক সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি। মানুষ যখন সভ্যতার দিকে এগুবে, ধীরে ধীরে এগুলো কমে আসবে বলে আমি মনে করি। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]