• প্রচ্ছদ » » তুখোড় অনুসন্ধান ও মুজাক্কিরের মৃত্যু


তুখোড় অনুসন্ধান ও মুজাক্কিরের মৃত্যু

আমাদের নতুন সময় : 23/02/2021

কাকন রেজা : বাংলাদেশে এখন গরম খবর হচ্ছে, ক্রিকেটার নাসিরের বউয়ের কয় স্বামী। আমাদের অনুসন্ধানী প্রতিবেদন যে কতটা তুখোড় তার প্রমাণ এই স্বামী আবিষ্কার কাহিনি। সব খবরকে প্রায় পেছনে ফেলেছে এই ‘অনুসন্ধানী প্রতিবেদন’। ভাবে-চক্করে অবস্থা দাঁড়িয়েছে যেন এর কাছে আল জাজিরাও নস্যি। এখন ফলো আপ চলছে নাসিরের কয় প্রেমিকা তাই নিয়ে।বিচিত্র বলি না, বিচিত্র বললেও একটা চিত্র থাকে, আমাদের সাংবাদিকতার এই দৈন্যতায় কোনো চিত্র নেই। থাকলে এ খবর জাতীয় ক্যাটাগরিতে জায়গা পেতো না। এটা স্রেফ ক্রীড়া কিংবা বেশি হলে বিনোদনের খবর। এমন খবর বিদেশি মাধ্যমগুলোতে ওই নির্ধারিত ক্যাটাগরিতেই প্রকাশ পায়। ফুটবলের দেশ ব্রাজিলে একমাত্র বিশ্বকাপ বা কোপা জয়ের খবরই যায় জাতীয়তে। ব্রাজিলের অন্যসব জয় থাকে ক্রীড়াতেই সীমাবদ্ধ। সেখানে একজন ক্রিকেটারের ব্যক্তিগত জীবন আমাদের মাধ্যমের ‘হট আইটেম’। ফেসবুক লাইভে একে অনুসন্ধানও বলা হচ্ছে। বলিহারি আমাদের সাংবাদিকতা। বিপরীতে কোম্পানীগঞ্জে গুলিতে নিহত সাংবাদিক মুজাক্কিরকে নিয়ে তেমন কোনো খবর নেই। তার জানাযা ও দাফনের খবর দিয়েছে কোনো কোনো গণমাধ্যম। সেখানে বলা হয়েছে কোম্পানীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দু-গ্রæপের গোলাগুলির ছবি তুলতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হন গণমাধ্যমকর্মী মুজাক্কির এবং পরে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় মারা যান। খবর শেষ। তবে প্রথম আলো সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিও চিত্র বিষয়ে খবর করেছে। সেখানে প্রথম আলো লিখেছে, বুরহান যখন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় বাঁচানোর আকুতি জানাচ্ছিলেন তখন পাশ থেকে আরেকজন বলছিলেন, ‘কী সাংবাদিক সে, সে কিসের সাংবাদিক, সে বাদলের চামচা’।
‘কী সাংবাদিক সে, সে কিসের সাংবাদিক, সে বাদলের চামচা’- এই যে সংলাপ, তা নির্ধারিত নাটকেরই স্ক্রিপ্ট। আমাদের দেশে কেউ মারা গেলে, নির্যাতিত হলে, লাঞ্ছিত হলে তার চরিত্র হননের যে প্রক্রিয়া শুরু হয়। যাকে বলা হয়, ভিক্টিম বেøইমিং, সেই বেøইমিং নাটকেরই স্ক্রিপ্ট এটা। এই বেøইমিংয়ে মৃত্যু, নির্যাতন, লাঞ্ছনা সবই গৌণ হয়ে যায়। বিপরীতে ভিক্টিমের চরিত্র হননের মাধ্যমে অপরাধীদের কাজের যৌক্তিকতা প্রমানের চেষ্টা হয় এবং বিচিত্র বলতে সেখানে সে চেষ্টা বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সফলও হয়। এখানেও বলার সময় বিচিত্র বলা যাবে না। বললেই, চিত্রের কথা উঠে আসবে। সেই চিত্রটাকে তোলা যাবে না। তারচেয়ে তোলা সহজ, ‘নাসিরের বউয়ের কয় স্বামী’ তার চিত্র। এতে আপাত কোনো বিপদের সম্ভাবনা নেই। অতএব চলুক অনুসন্ধান। এক্সক্লুসিভ হয়ে উঠুক বঞ্চিত স্বামীর পাশে দাঁড়ানোদের সমবেদনামূলক খবর। এই বেদনায় হারিয়ে যাক মুজাক্কিরের প্রতি সমবেদনার ‘সম’। জয়তু এই অসম কায়কারবার। লেখক: সাংবাদিক ও কলামিস্ট।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]