একুশের চেতনা জড়িয়ে আছে প্রভাতফেরির মধ্যে

আমাদের নতুন সময় : 26/02/2021

ওয়ালিউর রহমান

 

বাঙালির জাতীয় জীবনে এক গৌরবময় ও ঐতিহ্যবাহী দিন মহান একুশে ফেব্রুয়ারি। এ দিনটি বাঙালির জীবনের সকল চেতনার মূল উৎস। একুশ আমাদের অহংকার, গৌরব, জাতিসত্তা ও প্রেরণার জায়গা। ১৯৫২ সালের এ দিনে মাতৃভাষা বাংলার মর্যাদা রাখতে গিয়ে বুকের রক্ত ঢেলে দিয়েছিল রফিক, সালাম, বরকত, সফিউর, জব্বার আরও কতো নাম না জানা বাংলার দামাল ছেলেরা।
বাঙালির একুশে ফেব্রুয়ারির সঙ্গে ভোরে খালি পায়ে প্রভাতফেরি আর ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গান অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। বাঙালির সে গৌরবে শ্রদ্ধার ফুলে ভরে যায় শহীদ মিনার। খালি পায়ে শিশির ভেজা শ্রদ্ধা নিবেদনে খুঁজে পাওয়া যায় বাঙালির আবেগ। একুশের প্রভাত ফেরি আমাদের শ্রদ্ধা, ভালোবাসা, প্রতিবাদের প্রভাত ফেরি।
প্রভাতফেরি শব্দটির জন্মই হয়েছে যেন একুশে প্রভাতের মিছিলকে বোঝাতে। একুশের চেতনায় জড়িয়ে থাকা প্রভাতফেরি নতুন প্রজন্মের কাছে দিন দিন অচেনা হয়ে যাচ্ছে। অথচ শুরু থেকে খালে পায়ে ছোট একটা ফুল নিয়ে শহীদ মিনারে যেতাম। অন্য রকম একটা উচ্ছ্বাস নিয়ে ভোরের জন্য অপেক্ষা করতাম। ভোর হতে না হতেই খালে পায়ে একটা ছোট ফুল নিয়ে ছুটে যেতাম। সেটা ছিল একটা অন্য রকম অনুভূতি যা বলে প্রকাশ করা যাবে না।
একুশের আবেগ আমাদের পথচলার শক্তি। এখন একুশে ফেব্রুয়ারি শুধু বাংলাদেশের গ-িতেই সীমাবদ্ধ নয়। এটি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবেও সুপরিচিত। বিশ্বের সব বাঙালিসহ অনেক বিদেশিরা এই দিনটি পালন করছে। এটা আমাদের জন্য একটা গর্ব।
আমরা যদি সকালের প্রভাত ফেরিকে বিসর্জন দিই তাহলে নতুন প্রজন্ম জানবেই না যে প্রভাত ফেরি কী ছিল। ২১ ফেরুয়ারি প্রভাত ফেরি কী! এটা শুধু বাংলাদেশের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে বিশ্বের সকল মানুষকে জানানো উচিত বলে আমি মনে করি। অনেক দেশে অনেক কিছু নিয়ে যুদ্ধ হয়েছে কিন্তু নিজের ভাষার জন্য প্রাণ একমাত্র বাঙালিরাই দিতে পেরেছে। নতুন প্রজন্মকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে এবং বাঙালি সংস্কৃতির প্রতি শ্রদ্ধাবোধ তৈরি করতে, একুশের চেতনাকে ধরে রাখতে হবে। আর একুশের চেতনা জড়িয়ে আছে প্রভাত ফেরির মধ্যে।
পরিচিতি : লেখক ও গবেষক এবং প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বাংলাদেশ হেরিটেজ ফাউন্ডেশন




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]