• প্রচ্ছদ » » অতিথি পাখিরা শীত শেষে উড়ে যায় সাইবেরিয়া কিন্তু আজীবন রাজনীতির মাঠে থাকা কমিটেড কর্মীদের ডানা থাকে না


অতিথি পাখিরা শীত শেষে উড়ে যায় সাইবেরিয়া কিন্তু আজীবন রাজনীতির মাঠে থাকা কমিটেড কর্মীদের ডানা থাকে না

আমাদের নতুন সময় : 01/03/2021

অঞ্জন রায় : যেকোনো রাজনৈতিক দলেই যারা রাজনীতি করতে করতে নিজেদের তৈরি করেন, তাদের তিনটি গুণ থাকে। প্রথমতো প্রান্তিক কর্মীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক, দ্বিতিয়তো দল ক্ষমতায় বা বিরোধীদলে থাকলে তারা রঙ বদল করেন না। আর তৃতীয়তো দলের প্রতি, দলীয় প্রধানের প্রতি তারা কমিটেড কোনো ষড়যন্ত্রে তারা থাকেন না। থাকেন না দলের আদর্শিক নেতার বিরুদ্ধে। আর দল যখন ক্ষমতায় থাকে তখন অতিথি পাখিদের চিৎকারে তারা অনেকটাই নীরব হতে বাধ্য হন। পকেটের জোরেও প্রকৃত কর্মীরা দুর্বল, এরও কারণ আছে তারা রাজনীতিটা করেছেন কমিটমেন্ট থেকে। আর অতিথি পাখিরা রাজনীতিতে ইনভেস্ট করেন। তাদের বিস্তর পুঁজিতে সবকিছুই তারা ভেবে নেন ক্রয়যোগ্য। উপমহাদেশের বাস্তবতায় এ অতিথিরা বেশ ভাগ্যবান। তারা সব সময়েই সুখে থাকেন। তাদের শরীরে রাজপথের নির্যাতনের দাগ বা ঘামের গন্ধের বদলে থাকে দামি ব্র্যান্ডের পোশাক, দামি পারফিউম। আর সে কারণেই আমাদের অনেকের কাছেই রাজপথে লড়াই করা যোদ্ধারা অদরকারী হয়ে পড়েন। তার চেয়ে ওই অতিথি পাখিরাই তো ভালো তারা অভাব, অপ্রাপ্তির কথা বলে না। উল্টো অভাব পূরণ করে দিতে হাত এগিয়ে থাকে।
ঘামের গন্ধ আর আঘাতের চিহ্ন যাদের শরীরে, তারা আর যাই হোক কমিটেড। অতিথি পাখিরা শীত শেষে উড়ে যায় সাইবেরিয়া কিন্তু আজীবন রাজনীতির মাঠে থাকা কমিটেড কর্মীদের ডানা থাকে না। তারা ভালো সময়ের অবহেলা ভুলে খারাপ সময়ে লড়াইয়ের ময়দানে লড়ে। বুলেটটা তাদের বুকে লালে পালাতে গিয়ে পিঠে লাগে না। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]