• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে চার দিনের সফরে ঢাকায় ওআইসি প্রতিনিধি দল [২]সংকটের পর থেকে রাজনৈতিক ও মানবিক সহায়তায় নেই উল্লেখযোগ্য কোনও অবদান


[১]রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শনে চার দিনের সফরে ঢাকায় ওআইসি প্রতিনিধি দল [২]সংকটের পর থেকে রাজনৈতিক ও মানবিক সহায়তায় নেই উল্লেখযোগ্য কোনও অবদান

আমাদের নতুন সময় : 01/03/2021

তরিকুল ইসলাম: [৩] আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালতে (আইসিজে) রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা লড়তে কেবল গাম্বিয়ার জন্য ১২ লাখ ডলার সংগ্রহ করতে পেরেছিলো অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি)।
[৪] গত বছরের শেষ দিকে ওআইসি দেশগুলোর ৪৭তম পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলনে এ অর্থ সংগ্রহ করা হয়। যেখানে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ৫ লাখ মার্কিন ডলার সহযোগিতা করা হয়েছিলো।[৫] ওআইসি সেক্রেটারিয়েটের তথ্য মতে, সৌদি আরব ৩ লাখ, মালয়েশিয়া, তুরস্ক ও নাইজেরিয়া প্রতিটি দেশ ১ লাখ মার্কিন ডলার এবং ইসলামিক সলিডারিটি ফান্ড ১ লাখ মার্কিন ডলার সহায়তা দিয়েছিলো।
[৬] রোববার ভাসানচর পরিদর্শন শেষে ওআইসির সহকারী মহাসচিব ইউসেফ আল দোবেয়ার বলেছেন, রোহিঙ্গারা যাতে আত্মমর্যাদা ও সম্মানের সঙ্গে মিয়ানমারে ফিরতে পারেন সেই চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
[৭] সমালোচকরা বলছেন, ওআইসি দিনে দিনে সম্মেলন ও অঙ্গীকার ঘোষণা সর্বস্ব হয়ে যাচ্ছে।
[৮] বিশ্লেষকদের মতে, রোহিঙ্গা সমস্যা, সিরিয়া ও ইয়েমেনের মানবিক সংকট মোকাবিলায়ও ওআইসির ভূমিকা হতাশাজনক।
[৯] কূটনীতিকরা বলছেন, শীর্ষ সম্মেলন থেকে শুরু করে নির্ধারিত, অনির্ধারিত, জরুরি সব ধরনের সম্মেলন করছে ওআইসি, কিন্তু সংস্থাটির বাস্তব অবদান টের পাওয়া যাচ্ছে সামান্যই।
[১০] প্যালেস্টাইন ইস্যুতে সংস্থাটির সদস্য দেশগুলো সরব থাকলেও ইরানের প্রধান সমরবিদ জেনারেল কাশেম সোলাইমানি এবং ইরানের পরমাণু অস্ত্র বিজ্ঞানী ফাকরিজাদেহ হত্যার পরও নীরব ভূমিকায় ছিলো ওআইসি। সম্পাদনা: রায়হান রাজীব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]