• প্রচ্ছদ » » ইসলামিস্টদের মাঠের শক্তি আছে, কিন্তু ‘মাথা’ নেই!


ইসলামিস্টদের মাঠের শক্তি আছে, কিন্তু ‘মাথা’ নেই!

আমাদের নতুন সময় : 07/04/2021

মুশফিক ওয়াদুদ : এই ফোনালাপ ফাঁস আর পুরো ক্যাম্পেইনের আসলে ইফেক্ট কেমন এ বিষয়টি ভাবছিলাম। আমার প্রাথমিক পর্যালোচনা হলো মামুনুল হক সাহেবের ভক্তক‚ল, সমর্থক এমনকি ভক্ত না কিন্তু মোটামুটি ইসলামিস্ট এমন মানুষদের কাছে এর ইফেক্ট একেবারে নেই। পর্যালোচনা মূলত ইমরান এইচ সরকার এবং মিডিয়াগুলোর ফেসবুক পেজের কমেন্টের ওপর ভিত্তি করে। সেখানে মামুনুল হক সাহেবের ভক্তরা উল্টো মিডিয়াকে এবং ইমরান এইচ সরকারকে গালমন্দ করছেন।
শাফকাত রাব্বী অনীক ভাই একটি ভালো উদাহরণ দিয়েছেন। বিখ্যাত ইসলামিক স্কলার তারিক রামাদানের আইনজীবী তার বিরুদ্ধে আনা একই ধরনের একটি অভিযোগ স্বীকার করে নিলেও তার ভক্তক‚ল সেগুলো কখনো মেনে নেয়নি। একই ধরনের বিষয় ছিলো পাকিস্তানি বংশদ্ভুত আমেরিকান ইসলামিক বক্তা নোমান আলী খানের ক্ষেত্রে। এ সংক্রান্ত স্ক্রিনশর্ট থাকলেও তার পাবলিক প্রোফাইলের খুব বেশি ক্ষতি করেনি। এর প্রধান কারণ হলো মামুনুল হক সাহেবের যারা ভক্ত তারা একাত্তর বা এ ধরনের মিডিয়াকে বিশ্বাস করেন না। একই অভিযোগ যদি ইনকিলাব কিংবা নয়াদিগন্ত করতো তাহলে ভক্তক‚লের অনেকেই হয়তো বিশ্বাস করতেন। এখন যারা এমন একটি বড় ক্যাম্পেইন হাতে নিয়েছেন তারা কি বিষয়টি বুঝতে পারেনি? জানেন না? আমি মনে করি অবশ্যই জানেন। এই ক্যাম্পেইনের টার্গেট আসলে তারা নন। টার্গেট হচ্ছে শহুরে মধ্যবিত্ত সেকুলার প্রগতিশীল ফেসবুকীয় জনগোষ্ঠি। হুজুররা যেটা তাদের করতে নিষেধ করেন সেই কাজ হুজুররাই করছেন এ ভাবনায় তারা যদি অল্প কিছু দিন অন্য অনেক ইস্যু নিয়ে না ভাবেন তার চেয়ে উপকারী আর কিছু ঘটতে পারে না। অন্য দিকে সেকুলার এবং কমিউনিস্টদের মধ্যে যারা কিছু সরকার বিরোধী কথা বার্তা বলছিলেন এখন তারা হুজুরদের নিয়েই ব্যস্ত হয়ে পরবেন।
তাছাড়া ব্রিটিশরা যেমন হিন্দু-মুসলমান দাঙ্গার মাধ্যমে দুইশ বছর ক্ষমতায় ছিলেন, বাংলাদেশে সেক্যুলার, কমিউনিস্ট এবং ইসলামিস্টদের মধ্যে সংঘর্ষ জারি রেখে বহু দিন ক্ষমতায় টিকে থাকা সম্ভব। কারণ হলো ইসলামিস্টদের মাঠের শক্তি আছে কিন্তু মাথা নেই। সরকারবিরোধী সেকুলার কমিউনিস্টদের মাথা আছে কিন্তু মাঠের শক্তি নেই। এই দু গ্রæপের একধরনের ঐক্য ছাড়া বাংলাদেশে কোনো সরকারের জন্য কোনো বাঁধা নেই। এই ধরনের বিষয়গুলো দুপক্ষকে সাংঘর্ষিক অবস্থায় নিয়ে যেতে সাহায্য করে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]