প্রকাশিত: Sat, Apr 6, 2024 12:51 PM
আপডেট: Sat, May 18, 2024 10:48 PM

[১]ঈদের আগেই ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে বাড়লো ৩০ টাকা, দেশি পেঁয়াজ ও আলুও বাড়তি

মাসুদ আলম: [২] ঈদকে ঘিরে ব্রয়লারসহ সব ধরনের মুরগির দাম বেড়েছে। সপ্তাহ ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা । দেশি পেঁয়াজ ও আলু কেজিতে ৫ টাকা বেড়েছে। 

[৩] রমজানে চাহিদা কম থাকায় সপ্তাহ ব্যবধানে সব ধরনের সবজির দাম স্থিতিশীল রয়েছে। তবে অন্যান্য নিত্যপণ্য আগের বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে। শুক্রবার রাজধানীর বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। 

[৩] সরেজমিনে দেখা যায়, ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে  ২৪০ থেকে ২৫০ টাকা। গত সপ্তাহে  ২২০-২৩০ টাকা দরে বিক্রি হয়েছিল। সোনালির কেজি ৩৪০ থেকে ৩৫০ টাকা যা গত সপ্তাহে ছিলো ৩১০ থেকে ৩২০ টাকা। এলাকাভেদে গরুর মাংসের কেজি ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা। খাসির মাংস ১১০০ থেকে ১২০০ টাকা। 

[৪] দেশি পেঁয়াজ কেজিতে ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ টাকা। ভারতীয় পেঁয়াজ ৬০ টাকা। তবে ভারতীয় পেঁয়াজের চাহিদা কম। এছাড়া আলু কেজিতে ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা। ডিমের ডজন ১২০ থেকে ১৩০ টাকা। 

[৫] দুই একটি সবজি ছাড়া অধিকাংশ সবজির দাম স্থিতিশীল রয়েছে। কাচাঁমরিচ ৮০ থেকে ১০০ টাকা, বেগুন ৪০ থেকে ৫০ টাকা, করলা ৭০ টাকা, পটল ৬০ টাকা, ঢেঁড়স ৬০ টাকা, শসা ৬০ থেকে ৭০ টাকা, লাউ প্রতিটি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, গাজর ৪০ টাকা, টমেটো ৪০ থেকে ৫০ টাকা ও শিম ৪০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। তবে বাজার থেকে ফুটপাতের ভ্যানে কেজিতে আরও ৫ থেকে ১০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে। 

[৬] তবে আগের বাড়তি দামেই বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের মাছ। পাঙাশ ২০০ থেকে ২২০ টাকা, তেলাপিয়া ২২০ টাকা, কই ২২০ থেকে ২৪০ টাকা, রুই আকারভেদে ৪০০ থেকে ৫৫০ টাকা ও চিংড়ি আকারভেদে ৮০০ থেকে ১২০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। 

[৭] খিলক্ষেতে বাজার করতে আসা নজরুল ইসলাম বলেন, হঠাৎ করে ব্রয়লার মুরগির কেজি ২৫০ টাকা। যা গত সপ্তাহে ছিলো ২১০ টাকা। এছাড়া গরুর মাংসের দামও বাড়তি। বাজারে সব ধরনের নিত্যপন্যের দাম বাড়তি। মানুষ কি খেয়ে বাঁচবে। সম্পাদনা: ইকবাল খান