প্রকাশিত: Sun, Jan 1, 2023 2:30 PM
আপডেট: Wed, Feb 8, 2023 3:07 AM

ঢাকায় প্রাথমিক, গাজীপুরে মাধ্যমিকের বই উৎসব নতুন কারিকুলামে শিক্ষা হবে আনন্দময়: শিক্ষামন্ত্রী



শাহীন খন্দকার, হাসিব খান: সারাদেশের স্কুলে স্কুলে রোববার বই বিতরণ উৎসব হয়েছে। কেন্দ্রীয়ভাবে দুটি স্থানে উৎসবের আয়োজন করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে প্রাথমিক পর্যায়ের এবং গাজীপুরের কাপাসিয়া মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে মাধ্যমিক পর্যায়ের বই উৎসব হয়েছে। এর আগে শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর আয়োজিত উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান। এ অনুষ্ঠানে সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়ন দলের খেলোয়াড় স্বপ্না রানী, সাথী বিশ্বাস, সাজেদা খাতুন এবং সোহাগী কিসকুর উপস্থিতি উৎসবকে ভিন্ন মাত্রা দিয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব ফরিদ আহাম্মদ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য শিরীন আখতার এমপি এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শাহ রেজওয়ান হায়াত। 

আলোচনা শেষে অতিথিরা কয়েকজন শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে এবং বেলুন উড়িয়ে এই বই বিতরণ উৎসবের উদ্বোধন করেন।

গাজীপুরের কাপাসিয়া মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে মাধ্যমিক পর্যায়ের বই উৎসব উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আগামী এক সপ্তাহে সবাই বই পেয়ে যাবে। ইতোমধ্যে প্রায় ৮০ ভাগ বই দিয়ে দেওয়া হয়েছে, শিক্ষাকে বাস্তব ও কর্মমুখী করার জন্য নতুন কারিকুলাম প্রণয়ন করা হয়েছে। নতুন কারিকুলামের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা আনন্দময় পরিবেশে পাঠ গ্রহণ করবে। শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, অভিভাবক শিক্ষাবিদ বিশেষজ্ঞ সকলের পরামর্শ নিয়ে আমরা এমন শিক্ষাক্রম তৈরি করেছি, যেখানে শিক্ষা হবে আনন্দময়, পরীক্ষা নিয়ে আমাদের শিক্ষার্থীরা সারাদিন ভীত থাকবে না। তবে ধারাবাহিক মূল্যায়নের মধ্য দিয়ে একটা বিরাট অংশ কোন মুখস্ত বিদ্যার বালাই থাকবে না, সক্রিয় শিখন হবে অভিজ্ঞতা ভিত্তিক শিখন হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব আবু বকর সিদ্দিকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। আরো বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিব কামাল হোসেন এবং গাজীপুরের জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান। 

করোনাভাইরাসের কারণে গত দুই বছর বই উৎসব হয়নি। এবার তাই উচ্ছাসের পাশাপাশি ছাপাখানায় কর্মযজ্ঞও বিশাল। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) জানায়, রোববার পর্যন্ত প্রাথমিকে ৭ কোটি ৫০ হাজারের কিছু বেশি বই ছাপা হয়েছে। ছাপার পর আনুষঙ্গিক কাজ শেষে উপজেলা পর্যায়ে গেছে ৬ কোটি ৭৭ লাখের বেশি বই। অন্যদিকে মাধ্যমিকে ১৯ কোটি ২২ লাখের বেশি বই ছাপা হয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে গেছে ১৭ কোটি ৭৯ লাখের বেশি বই।

এনসিটিবির চেয়ারম্যান মো. ফরহাদুল ইসলাম বলেন, উৎসবের জন্য সব জায়গাতেই বই গেছে এবং সব শিক্ষার্থীই নতুন বই হাতে পাবে। তবে শতভাগ বই দিতে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত লেগে যেতে পারে। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব