প্রকাশিত: Sun, Jan 15, 2023 3:51 PM
আপডেট: Wed, Feb 8, 2023 3:45 AM

নেপালে ইয়েতি এয়ারলাইন্সের যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৬৮

রাশিদুল ইসলাম: রোববার সকালে বিমানটি কাঠমান্ডু থেকে পোখারা যাত্রা করে, পোখারায় অবতরণের কিছুক্ষণ আগে বিধ্বস্ত হয়। মাঝ আকাশেই পাইলট বিমানটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। পোখারায় অবতরণের সময়ে পুরানা বিমানবন্দর ও পোখারা বিবামনবন্দরের মাছে প্রবাহিত সেতি গন্দকি নদীর তীরের বনভূমিতে বিমানটি  বিধ্বস্ত হয়। বিমানে বিদেশি যাত্রীরাও ছিলেন। কাঠমান্ডু পোস্ট

আরোহীদের মধ্যে ৬৮ জন যাত্রী ছিলেন। ক্রু ছিলেন ৪ জন। যাত্রীদের মধ্যে ১৫ জন বিদেশি ছিলেন। তাদের মধ্যে ৫ জন ভারতীয়। অন্যদের জাতীয়তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। প্রথম দফায় ৪০ জন যাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে উদ্ধারকর্মীরা। দ্বিতীয় দফায় এ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৬৮ জনে। দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে আর কেউ বেঁচে নেই। বিধ্বস্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিমানটিতে আগুন ধরে যায়। এরফলে সাবধানতার সাথে উদ্ধারকর্মীরা উদ্ধারকাজ পরিচালনা করে। ক

ছে, যাত্রীদের মধ্যে ৬২ জন প্রাপ্তবয়স্ক। বাকি ৬ জন শিশু। যাত্রীদের মধ্যে ৫৩ জন নেপালের, পাঁচজন ভারতীয়, চারজন রাশিয়ান, একজন আইরিশ, দু’জন কোরীয়, একজন আর্জেন্টাইন ও একজন ফরাসি নাগরিক ছিলেন।

দুর্ঘটনার পর নেপালের মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠক বসে। এ ঘটনায় নেপালের প্রধানমন্ত্রী পুষ্পকমল দহল রাষ্ট্রীয় সংস্থাগুলোকে উদ্ধারকাজে সহায়তা করার আহ্বান জানান। 

নেপালের সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ বলছে, বিমানটি স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩৩ মিনিটে কাঠমান্ডু থেকে পোখারার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। স্থানীয় এক কর্মকর্তা জানান, বিধ্বস্ত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উড়োজাহাজটিতে আগুন ধরে যায়। দুর্ঘটনার পর পোখারা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বন্ধ করে দেওয়া হয়। 

নেপালে প্রায়ই বিমান  বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনা ঘটে। ২০১৮ সালে ঢাকা থেকে নেপালের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার একটি বিমান কাঠমান্ডুতে বিধ্বস্ত হয়। এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছরের মে মাসে নেপালে তারা এয়ারের একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে ২২ আরোহীর সবাই নিহত হন। এছাড়া কাঠমান্ডুতে যাওয়ার সময় পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইনসের একটি উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হলে ১৬৭ আরোহীর সবাই নিহত হন। এর দুই মাস আগে, থাই এয়ারওয়েজের একটি উড়োজাহাজ একই বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হলে ১১৩ জনের মৃত্যু হয়। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব