প্রকাশিত: Sun, Feb 11, 2024 1:25 AM
আপডেট: Thu, Jul 25, 2024 7:00 AM

[১] পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচনের ফলাফল [২] ইমরান ৯৫, নওয়াজ ৭৪ ও বিলাওয়াল ৫৪ আসনে জয়ী

ববি বিশ্বাস: [৩] ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দেশটির জাতীয় পরিষদের ২৬৬টি আসনের মধ্যে ২৬৫টি আসনে নির্বাচন হয়। এখন পর্যন্ত পাওয়া ফলাফল অনুযায়ী পাকিস্তানের গণমাধ্যম জিও নিউজ জানায়, ইমরান খানের পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯৫টি আসনে জয় লাভ করেছে। ৭৪টি আসনে জয় লাভ করেছে নওয়াজ শরীফের পাকিস্তান মুসলিম লীগ (পিএমএল-এন)। অপরদিকে ৫৪টি আসনে জয়ের দেখা পেয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)। 

[৪] তাছাড়া ১৭টি আসনে জয়ের দেখা পেয়েছে মুত্তাহিদা কওমী মুভমেন্ট পাকিস্তান (এমকিউএম-পি)। এদিকে অন্যান্য স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯টি আসনে ও অন্যান্য দলগুলো ১৬টি আসনে জয় লাভ করেছে।

[৫] পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের ফলাফলের পাশাপাশি প্রকাশিত হয়েছে প্রাদেশিক পরিষদের ফলাফলও। এখন পর্যন্ত পাওয়া ফলাফলের ভিত্তিতে পাকিস্তানের গণমাধ্যম জিও নিউজ জানায়, পাকিস্তানের ৪টি প্রদেশ পাঞ্জাব, সিন্ধু, বেলুচিস্তান ও খাইবার-পাখতুনখোয়ার নির্বাচন ফলাফলেও প্রভাব দেখা যায় মূলধারার দলগুলোর। 

[৬] দেশটির পাঞ্জাব পরিষদের নির্বাচনে সর্বমোট ৩০১টি আসনের মধ্যে ১৩৬ টি আসন পেয়ে সবার চেয়ে এগিয়ে আছে নওয়াজ শরীফের পাকিস্তান মুসলিম লীগ (পিএমএল-এন)। ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ১১৭ টি আসনে জয় লাভ করে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে এবং ১০টি আসনে জয় পেয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির দল পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)। অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র পার্থীরা পেয়েছে ৩৮টি আসন।

[৭] তবে সিন্ধু প্রদেশের ১৩০টি আসনের নির্বাচনে ৮৩টি আসন পেয়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির দল পিপিপি। এরপর খালিদ মকবুল সিদ্দিকির দল মুত্তাহিদা কওমী মুভমেন্ট (এমকিউএম-পি) ২৭টি আসন পেয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা সিন্ধুর ১১টি আসনে জয়লাভ করেছে। তবে এই প্রদেশে মুখ থুবড়ে পড়েছে নওয়াজ শরীফের পাকিস্তান মুসলিম লীগ (পিএমএল-এন)। তারা কোনও আসনেই জিততে পারেনি। অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র পার্থীরা পেয়েছে ৯টি আসন।

[৮] বেলুচিস্তান প্রাদেশিক পরিষদ নির্বাচনে পাকিস্তানের প্রভাবশালী রাজনৈতিক দলগুলো বিশেষ কোনো চমক দেখাতে পারেনি। সর্বমোট ৫১টি আসনের মধ্যে আবারও সর্বাধিক ১১টি আসনে জয় পেয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির দল পিপিপি। পিএমএল-এন পেয়েছে ১০টি আসন। ফজলুর রহমানের জামিয়াত উলেমা-ই-ইসলাম জয় লাভ করেছে ৯টি আসনে। কিন্তু সিন্ধু প্রদেশে কোনো আসনেই সাফল্য দেখাতে পারেনি পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। তাছাড়া অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা এই প্রদেশে পেয়েছে ২১টি আসন।

[৯] বেলুচিস্তানে সুবিধা করতে না পারলেও খাইবার-পাখতুনখোয়া প্রদেশে সাফল্যের ঝড় বইয়ে দিয়েছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। প্রদেশের ১১১টি আসনের মধ্যে সর্বাধিক ৮০টি আসনে জয়লাভ করেছে পিটিআই। সেক্ষেত্রে মাত্র ৫টি আসনে জয় পেয়েছে নওয়াজ শরীফের দল পিএমএল-এন। একইভাবে বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারির দল পিপিপি পেয়েছে মাত্র ৪টি আসন। তবে ৮টি আসন পেয়ে পিপিপি ও পিএমএল-এন থেকে কিছুটা স্বস্তিদায়ক অবস্থানে আছে ফজলুর রহমানের জামিয়াত উলেমা-ই-ইসলাম। অপরদিকে অন্যান্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা এই প্রদেশে পেয়েছে ১৪টি আসন। সম্পাদনা: সমর চক্রবর্তী