প্রকাশিত: Sat, Apr 6, 2024 12:54 PM
আপডেট: Sat, May 18, 2024 11:44 PM

[১]পবিত্র জুমাতুল বিদা’য় মুসল্লীদের উপচে পড়া ভিড়, বিশেষ মোনাজাত

রিয়াদ হাসান: [২] পবিত্র রমজানের মাসের শেষ জুমায় নামাজ আদায় করতে রাজধানীসহ সারাদেশের মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের ঢল নামে। নির্ধারিত সময় আগেই মসজিদে উপস্থিত হন মুসল্লিরা। আজানের আগেই লোকে লোকারণ্য হয়ে যায় অধিকাংশ মসজিদ। মসজিদে জায়গা না পেয়ে বাইরের সড়ক পর্যন্ত মানুষের উপস্থিতি ছড়িয়ে পড়ে। সড়কে জায়নামাজ, চাদর, কাপড় ইত্যাদি বিছিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে নামায আদায় করেন মুসল্লিরা।

[৩] জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জুমাতুল বিদা উপলক্ষ্যে নামাজের পর বিশেষ মোনাজাত করা হয়। নামাজ পূর্ব বয়ানে খতিব মাওলানা মুফতি রুহুল আমীন পবিত্র মাহে রমজান, শবে কদর, জুমাতুল বিদার তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা করেন। যাকাত ও ফিতরা আদায়ের প্রয়োজনীয়তার ব্যাপারে উপস্থিত মুসল্লিদের গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দেন।

[৪] প্রসঙ্গত, রমজান মাসের শেষ জুমার দিন মুসলিম বিশ্বে জুমাতুল বিদা হিসেবে পালন করা হয়। এদিন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য এবং দেশ-জাতি ও মুসলিম উম্মাহর ঐক্য কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন। প্রতিবারের মতো এবারো বাংলাদেশে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে এই বিশেষ দিন পালিত হলো। বিশেষ মোনাজাতে অংশ নিয়ে আল্লাহর দরবারে ক্ষমা ও রহমত চেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন অনেকে।

[৫] বায়তুল মোকাররমে আসা এক মুসল্লি বলেন, রমজান মাসের শেষ জুমার নামাজ আদায় করলাম। এই দিনটি অনেক তাৎপর্যপূর্ণ এবং এই দিনে আল্লাহর রহমত পাওয়ার মহাসুযোগ, তাই আমরা নামাজ আদায় করে আল্লার কাছে প্রার্থনা করেছি।

[৬] নামাজের আগে ও পরে মুসল্লিরা আল বিদা, আল বিদা, ইয়া শাহরু রমাদান ধ্বনি উচ্চারণ করতে থাকেন। যার অর্থ-বিদায়, বিদায় হে মাহে রমজান। তারা বলেন, জুমাতুল বিদা রোজাদারকে স্মরণ করিয়ে দেয়, রমজানের শেষলগ্নে এর চেয়ে ভালো কোনো দিন আর পাওয়া যাবে না। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব