প্রকাশিত: Mon, May 13, 2024 11:24 AM
আপডেট: Sat, May 18, 2024 11:25 PM

[১]তাজউদ্দীন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লিফটে আটকে রোগীর মৃত্যু

এ এইচ সবুজ, গাজীপুর :[২] রোববার বেলা পৌনে ১১টার দিকে মেডিসিন বিভাগ থেকে সিসিইউতে স্থানান্তরের সময় লিফটে ৪৫ মিনিট আটকে থেকে রোগীর মৃত্যু হয়। মারা যাওয়া মমতাজ (৫০) কাপাসিয়া উপজেলার বারিগাও গ্রামের শরীফ উদ্দীনের স্ত্রী।

[৩]বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডা. কামরুল ইসলাম।

[৪]এঘটনা তদন্তে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি লিফট আটকে যাওয়ার ও রোগীর মৃত্যু কারণ অনুসন্ধান করে ৩ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিবে।

[৫] রোগীর স্বামী অভিযোগ করেন, লিফটে নামানোর সময় আমি লিফটের বাইরে ছিলাম। পরে যখন লিফট আটকে যায়, তখন আমি একবার তিন তলায় (প্রশাসনিক ভবন), একবার পাঁচ তলায়, একবার সাত তলায় বিভিন্ন কর্মকর্তার নিকট দৌড়াদৌড়ি করি। আমার রোগীকে উদ্ধার করার জন্য, তাকে বাঁচানোর জন্য তাদের কাছে আবেদন-নিবেদন করি। কিন্তু তারা আমার আবেদনে সাড়া দেন নাই। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীকে দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসা দিলে আমার রোগী হয়তো বেঁচে যেতে পারত।

[৬]হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। । লিফটের যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে রোগী আটকে গিয়ে মারা গেছে। এ ঘটনা তদন্ত করার জন্য ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটি আগামী ৩দিনের মধ্যে লিফট আটকে যাওয়া ও রোগী মৃত্যুর কারণ উদঘাটন করে প্রতিবেদন দিবে। প্রতিবেদন পেলে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

[৭] এর আগে ৪ মে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা এক রোগী হাসপাতালের ১২তলা থেকে পড়ে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেছিলেন। মারা যাওয়া রোগীর নাম জিল্লুর রহমান (৭০)। তিনি গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার দরদরিয়া এলাকার কাসেম আলীর ছেলে। সম্পাদনা: কামরুজ্জামান