এক নিরব ঘাতক ব্যাধির নাম হচ্ছে ডিপ্রেশন

আমাদের নতুন সময় : 20/12/2018

সাজিয়া আক্তার : প্রায় প্রত্যেকেই জীবনের কোন না সময়ে প্রচ- ডিপ্রেশনে ভোগে। ডিপ্রেশনে আক্রান্ত মানুষটি তখন অনেকটা নিরবেই নিজেকে অন্য সবার থেকে আলাদা করে নেয়। একা থাকতে অভ্যস্ত হয়ে যায়। কোন আনন্দ, সুখ, হাসি কান্না তখন আর তাকে স্পর্শ করে না।

পৃথিবীতে মানুষকে যে জিনিসটা সবচেয়ে বেশি কষ্ট দেয় তা হলো মানসিক অশান্তি। মূলত… ডিপ্রেশনের শুরু সেখান থেকেই। ডিপ্রেশনে ভুগে জীবনের প্রতি অনীহা এসে যায় অনেকেরই। বোকা মানুষ গুলো খুব অল্পতেই… কোন কিছু না পাওয়ার কষ্ট অথবা জীবন থেকে কিছু হারানোর যন্ত্রণায় এমনভাবে ডিপ্রেশনে পতিত হয় যেন জীবন এখানেই শেষ।

আরেহ… জীবন তো মাত্র শুরু। জীবনে চলার পথে হাজারটা বাধা আসবে। যে সেই বাধাগুলো অতিক্রম করে তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবে, সেই প্রকৃত জয়ী। জীবনে কিছু চেয়েছো, পাওনি। কোন ব্যাপার না। চেষ্টা করতে থাকো। একদিন তা হাতের মুঠোয় চলে আসবে, তার থেকেও অধিক কিছু তোমার জন্য অপেক্ষা করছে। শুধু মনোবল হারিও না।

জীবন থেকে কিছু হারিয়ে গেছে। প্রচ- হতাশ হয়ে দিন পার করছো। সব কিছু অসহ্য লাগছে। কোন কিছুই ভালো লাগছে না।

মনে রেখো… যে জিনিস জীবন থেকে হারিয়ে যায় তা আবার ফিরে আসবে তোমার জীবনে। অন্য কোন রুপে, অন্য কোন সময়ে। তখন এই জিনিসটা তোমার হারানোর সব ব্যাথা ভুলিয়ে দিবে। তোমার জীবনকে আরও বেশি আনন্দময় করে তুলবে। তার জন্য তোমাকে শুধু ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করতে হবে। নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাসই হলো সমস্ত জয়ের মূল মন্ত্র।

এতো ছোট কিছুতে জীবনে ভেঙ্গে পড়লে কি চলে?

জীবন তোমার জন্য অপার সুযোগ নিয়ে অপেক্ষা করছে। হাতছানি দিয়ে ডাকছে। তুমি শুধু তোমার সর্বোচ্চটুকু দিয়ে চেষ্টা করে যাও। সাফল্য আসতে বাধ্য।

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]