চ্যালেঞ্জটা যেন সফলভাবে নিতে পারি

আমাদের নতুন সময় : 20/12/2018

শামীমা আক্তার জাহান পপি

 

আমি গত জুলাই মাসে ‘শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের কার্যালয়’ এ আসি ছয় মাসের সংযুক্তিতে (সরকারি চাকরি তে সংযুক্তি হলো এমন সিস্টেম যেটায় আমার মূল কর্মস্থল থেকে বেতন ভাতা পাব কিন্তু কাজ করতে হবে অন্য অফিসে এমন একটা ব্যাপার)

আমি এখানে ইচ্ছা করেই আসি- আসার আগে যেটা জানতাম না সেটা হল এই অফিসে এর আগে কোন নারী অফিসার আসেন নাই – গত বছ বড় রোহিঙ্গা ইনফ্লাক্স এর পর জরুরী ভাবে তিন জন নারীকে সংযুক্তি দেয়া হলেও কিছুদিন পরেই তাদের নিয়ে যাওয়া হয় ফলে ক্যাম্প-ইন-চার্জ হিসাবে কোন নারীই আসেনি ১৯৯২-২০১৮ পর্যন্ত। আমি আসার পরেও তাই কিছুটা কনফিউশন থেকে আমাকে অফিসে রাখা হয় গত পাচ মাস। কযৈকদিন আগে আমাকে তিনটি ক্যাম্পের ‘সহকারী ক্যাম্প-ইন-চাজ’ হিসাবে দায়িত্ব দেয়া হয়। আমি অনেক খুশি – কারণ এক স্যার কাল যখন নিজে বলছিলেন ‘অনেক দিনের ট্যাবু ভাংল- তোমাদের ব্যাচের অন্য যারা আগ্রহী আছে ওদের আসতে বল- ৭/৮ জন লেডিকে ক্যাম্প ইন চার্জ করাই যায় এখন’ তখন সত্যি মনে হচ্ছিল গত পাঁচ মাস আমার এই দাঁত কামড়ে পড়ে থাকাটা সার্থক।  রোহিঙ্গা ইস্যুতে সবচেয়ে কম লাইম লাইটে আসে আমাদের ক্যাম্প ইন চার্জ রা কারণ তারা সরকারের অংশ তাই প্রচার হয়না তাদের কাজ – প্রচার হয় সব এনজিও, ইউএন এজেন্সির কথা কিন্তু ক্যামএ মূল সমন্বয়ক এই ‘ক্যাম্প ইন চার্জ’ রা – অন্য দেশে ‘ক্যাম্প ম্যানেজার’ বলে – এবং নরমালি এই কাজটা করে টঘঐঈজ এর স্পেশালিষ্ট রা – বাংলাদেশে প্রথম সরকারি অফিসার রা এটা করছেন এবং লাস্ট জেনেভায় সব দেশের ক্যাম্প মানেজার দের সম্মেলনে বাংলাদেশ এটায় প্রশংসা পেয়েছে এই বিষয়ে কারণ কোন বড় ধরনের দুর্ঘটনা এই দেড় বছরে ক্যাম্প সাইটে হয়নি। সেই জায়গাটায় কাজ করার সুযোগ পেয়েছি- আমি আসলে খুব এক্সাইটেড।  দারুণ কিছু সিনিয়র স্যারের কাছে থেকে সহযোগিতা পেয়েছি- স্পেশালি দুই জন স্যার অন্য স্যার দের ‘ও তো মেয়ে ও কি পারবে’ এই কথাকে যেভাবে প্রোটেস্ট করেছেন এবং আমাকে জাস্ট অফিসার ভেবে কাজ শিখাচ্ছেন এটাতে আমি আশাবাদী – সবাই দোয়া কইরেন – চ্যালেঞ্জটা যেন সফল ভাবে নিতে পারি।

আমার কোন কাজে যেন এমন কথা না আসে ‘আরে বলছিলাম মেয়ে মানুষ পারবে না’ – এটাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ – প্রথম অর্ডারের পর শুধু এই কথা ভেবে আমি ঠিক মতো আনন্দ অনুভব ও করতে পারি নাই। সূত্র : ফেসবুক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]