যোগব্যায়াম শরীর-মন-আত্মার শান্তি বাড়ায়

আমাদের নতুন সময় : 22/06/2019

ইউসুফ বাচ্চু : রাজধানীতে পঞ্চমবারের মতো আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত হয়েছে। মানুষের মন, হৃদয়, শরীর ও আত্মার শান্তি বাড়ায় যোগব্যায়াম। প্রত্যেকের জীবনে যোগব্যায়াম দরকার। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে একযোগে এ দিবস পালিত হয়েছে।

যোগ হলো প্রাচীন ভারতের এক বিশেষ ধরনের শারীরিক ও মানসিক ব্যায়াম এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলন প্রথা। প্রতিটি মানুষ যেন সুস্থতার সঙ্গে মানসিক শুদ্ধতার ভেতর দিয়ে বেড়ে ওঠে সেই বার্তা ছড়িয়ে দেয় যোগ দিবস। যা দেশ ও জাতির জন্য কল্যাণ বয়ে আনবে।

শুক্রবার সকাল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভিডিও বার্তার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, যোগব্যায়ামের সঙ্গে পরিচয় অনেক আগে থেকেই। তখন আমরা ঘরে বসে যোগব্যায়াম করতাম। এখন বিশাল পরিসরে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে এ ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে। যোগব্যায়াম শরীর, মন ও আত্মার জন্য খুবই উপকারী। এ তিনের মধ্যে সংযম, শৃঙ্খলা ও শান্তি আনে। এজন্য আমরা ভালো চিন্তা করতে পারি। যা দেশ ও জাতির জন্য কল্যাণ বয়ে আনে।

ভারতীয় হাই-কমিশনার রিভা গাঙ্গুলী দাশ বলেন, আমি খুবই খুশি। বাংলাদেশের অনেক মানুষ আজ মাঠে এসেছেন যোগব্যায়াম করতে। এটা দেখে আমি উৎফুল্ল, আনন্দিত, মনে সুখ ও শান্তি অনুভব করছি। ভারতের উদ্যোগে জাতিসংঘ ২০১৪ সালে যোগ দিবসের স্বীকৃতি দিয়েছে। সে সময় বাংলাদেশসহ ১৭৫টি দেশ দিবসটিকে স্বীকৃতি দেয়। যোগ দিবস এখন পৃথিবীর বিখ্যাত স্থানেগুলোতেও পালিত হচ্ছে। বাংলাদেশেরও ৯টি বড় শহরে পালিত হচ্ছে।

রেলমন্ত্রী বলেন, ব্যক্তিগত জীবনে আমরা অনেকেই পার্কে ও বিভিন্ন স্থানে হাটাহাটি, ব্যায়াম করি। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে এটি পালন করা হয় না। ভারতীয় দূতাবাস বাংলাদেশের বড় বড় শহরগুলোতে আজ যোগ দিবস পালনের উদ্যোগ নিয়েছে। যোগব্যায়াম আমাদের শরীর সুস্থ করে ও মনে প্রশান্তি আনে।

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, এতো সুন্দর আয়োজন করেছে ভারতীয় দূতাবাস, এজন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই। সারা পৃথিবীতে যখন যোগব্যায়াম নিয়ে আলোচনা চলছিল, তখন জাতিসংঘ সেটিকে স্বীকৃতি দিয়েছে। যোগব্যায়াম মনকে শান্ত করে, সমাজকে অস্থিরতা থেকে মুক্তি দিতে পারে। সম্পাদনা : আবদুল অদুদ

 




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]