• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]নিউমার্কেটে আড়াই হাতের অস্থায়ী দোকান করতে শুরুতেই তিন থেকে চার লাখ টাকা দিতে হয় [২]সারাবছর চাঁদাবাজি তো আছেই, দৈনিক ৩০০ থেকে ৮০০ টাকা


[১]নিউমার্কেটে আড়াই হাতের অস্থায়ী দোকান করতে শুরুতেই তিন থেকে চার লাখ টাকা দিতে হয় [২]সারাবছর চাঁদাবাজি তো আছেই, দৈনিক ৩০০ থেকে ৮০০ টাকা

আমাদের নতুন সময় : 12/04/2021

মিনহাজুল আবেদীন: [৩] ব্যাগ বিক্রেতা মো. সোহাগ হোসেন বলেন, এখানে টাকা ছাড়া কারও জায়গা হয় না। প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আসার আগে সিগনাল পাই, দোকানপাট তুলে নেই। তারা চলে গেলে আবার দোকান বসানো হয়। অনেকেই দেশের বাড়ি থেকে ভিটেমাটি বিক্রি করে টাকা এনে দোকান নিয়েছে।
[৪] নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, শুধু নিউমার্কেটের ভেতরে নয়, বাইরেও চাঁদাবাজি হয়। জুতাপট্টি, গাড়ি পার্কিং, বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা ভ্রাম্যমান বিক্রেতা, দুইটা ওভার ব্রীজ- প্রতিটি লাইনের জন্য নির্দিষ্ট লোক রয়েছে। তারা নির্দিষ্ট সময়ে চাঁদা নেয়। কেউ চাঁদা দিতে ব্যর্থ হলে, তাকে ব্যবসা করতে দেয়া হয় না। ভয়ে কেউ মুখ খোলে না।
[৫] তিনি বলেন, টাকা নেয় সিটি কর্পোরেশন, পুলিশ, স্থানীয় ছাত্রনেতা ও প্রভাবশালী ব্যক্তিরা। কেউ সরাসরি সামনে আসে না, চাঁদা তোলার দায়িত্বে নিয়োজিতরাই তাদের টাকা পৌঁছে দেয়।
[৬] সিএনজি চালক মো. ইয়াসির হোসেন বলেন, নিউমার্কেট হলো ধান্দাবাজির আখড়া, যে যার মতো করে টাকা কামিয়ে নেয়। এখানে প্রশাসনের কোনও ভূমিকা নেই। নিউ মার্কেটের কোনও জায়গায় ১ মিনিট দাঁড়ালেই ২০ টাকা গুণতে হয়। টাকা না দিলে দাঁড়াতে দেয়া না।
[৭] কাপড় বিক্রেতা মো. মামুন হোসেন বলেন, সব কিছু মেনে নিয়েই বাধ্য হয়ে ব্যবসা করছি।
[৮] ঢাকা নিউ সুপার মার্কেটের দক্ষিণ বনিক সমিতির সভাপতি মো. সহিদ উল্ল্যাহ (সহিদ) বলেন, নিউ মার্কেটের ভেতর থেকে কোনও দোকান ওঠানো হয় না। তবে বিভিন্ন ধরনের প্রতিবন্ধকতা ও মানুষের চলাচলে বাধা সৃষ্টি হলে এবং জনসমাগম বেশি হলে তখন ভ্রাম্যমাণ পরের অংশ পড়ুন পৃষ্ঠা-২এ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]