• প্রচ্ছদ » » দেশের ৭৬ শতাংশ বেকার ছেলেমেয়ের হতাশাকে নিয়ে ব্যবসার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উপায় হলো মোটিভেশন


দেশের ৭৬ শতাংশ বেকার ছেলেমেয়ের হতাশাকে নিয়ে ব্যবসার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উপায় হলো মোটিভেশন

আমাদের নতুন সময় : 17/04/2021

জান্নাতুন নাঈম প্রীতি : সমস্যা আসলে মুনজেরিন শহীদ বা তার ইংরেজি ভোকাবুলারির বইয়ের না। সমস্যা আরিফ আজাদ বা ওয়াজের বক্তা মিজানুর রহমান আজহারিরও নয়। এমনকি সমস্যা বেস্টসেলার লিস্ট বানানো ব্যবসায়ী রকমারিরও না। তাহলে সমস্যা কীসের? সমস্যা হইলো- শিক্ষাব্যবস্থার। দিন দিন একটা মেধাহীন, মূর্খ জাতি গড়ে ওঠার জন্য একটা মেরুদÐহীন শিক্ষাব্যবস্থাই সবচেয়ে দারুণ। এই শিক্ষাব্যবস্থা কৌতুহলী হতে শেখায় না, প্রশ্ন করতে শেখায় না, প্রতিবাদী হতেও শেখায় না। শেখায় বিসিএস গাইড মুখস্থ করতে, মাথানিচু করা দাস হতে অথবা জীবিকার চিন্তায় পাগল হয়ে যেতে। অথচ একদিন এই দেশেরই কবি শহীদ কাদরী অতি দম্ভ নিয়ে প্রশাসনের চাকরি ছেড়ে দিয়ে বলেছিলেন, এই হিন্দি চুলের চাকরি শহীদ কাদরী করে না। পোলাপানরে দোষ দিয়ে লাভ নেই। তারা যেমন শিক্ষা পাবে তেমনই হবে সেটা স্বাভাবিক। তাদের আইডল হিরো আলম থেকে শুরু করে আরিফ আজাদরা হবে এইই স্বাভাবিক। গত বছর বইমেলায় গবেষক আরিফ রহমান আমার একটা সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন। তিনি আমাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, বইমেলায় মোটিভেশানের বই বেস্টসেলার হওয়া নিয়ে আপনার ভাবনা কি? আমি উত্তর দিয়েছিলাম, দেশের ৭৬ শতাংশ বেকার ছেলেমেয়ের হতাশাকে নিয়ে ব্যবসার সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য উপায় হলো মোটিভেশন। পোলাপান চাকরি না পেয়ে হতাশ হয়ে মার্ক জাকারবার্গ বা বিল গেটস হতে চাইবে এটা স্বাভাবিক। কিন্তু কে কোন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে আছে সেটা মোটিভেশানের বই লিখিয়েরা বলবে না। জাকারবার্গের ছেলেবেলা আর চাঁদপুর সরকারি কলেজের পোলাপানের ছেলেবেলায় পার্থক্য আছে, সেইটাও বলবে না। ছেলেপেলে এসব মোটিভেশানের বই কিনবে, অসম অস্বাস্থ্যকর স্বপ্ন দেখবে এবং হতাশ হবে। যে ইংরেজি স্কুলে শেখার কথা সেই ইংরেজি শিখবে মুনজারিনের বই থেকে, কারণ স্কুলে ওই জিনিস শেখায়নি। বইমেলায় বইয়ের তদারকির জন্য পুলিশ রাখা, বই ব্যান করার সুবিধা রাখা, সিলেবাস বদলানো- সব সুযোগ যেহেতু আছেই, কাজেই সকল কাজ সম্পন্ন। এখন সেটার ফলাফল নিতে অসুবিধা কই? আমি এগুলো বলতেও চাই না, কারণ কার অনুভ‚তিতে আঘাত লাগে কে জানে। কেবল আমি দেশের ওপর প্রবল রাগ করে বলতে চাই- হে মোর দুর্ভাগা দেশ, যাদের করেছ অপমান, অপমানে হতে হবে তাহাদের সবার সমান। মানুষের অধিকারে, বঞ্চিত করেছ যারে, সম্মুখে দাঁড়ায়ে রেখে কভু কোলে দাওনি স্থান। অপমানে হতে হবে তাহাদের সবার সমান! অলরেডি আমরা আত্মসমর্পণ করে ফেলেছি, এখন বুলেট কখন গায়ে বিঁধবে তার অপেক্ষা করা ছাড়া উপায় আছে কি? ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]