• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]টিকা পাওয়া নিয়ে সংকটের মুখে বাংলাদেশ [২] প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের কার্যক্রম একইসঙ্গে চালানো চ্যালেঞ্জ হতে পারে


[১]টিকা পাওয়া নিয়ে সংকটের মুখে বাংলাদেশ [২] প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের কার্যক্রম একইসঙ্গে চালানো চ্যালেঞ্জ হতে পারে

আমাদের নতুন সময় : 17/04/2021

শিমুল মাহমুদ: [৩] ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের কাছ থেকে কেনা তিন কোটি ডোজ টিকার মধ্যে মাত্র ৭০ লাখ ডোজ টিকা হাতে পেয়েছে বাংলাদেশ। উপহার হিসেবে পেয়েছে আরো ৩২ লাখ ডোজ। যার মধ্যে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৫৬ লাখ ৮৬ হাজার ৮৮৫ জন; দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিয়েছেন ৯ লাখ ৩০ হাজার ১৫১ জন। হাতে রয়েছে ৩৫ লাখ ৮২ হাজার ৯৬৪ ডোজ। ফলে এখনই দ্বিতীয় ডোজের জন্য ঘাটতি টিকা ১১ লাখ ৭৩ হাজার ৭৭০। নিবন্ধন করে আরো অপেক্ষায় আছেন ৪ লাখ ৭১ হাজার ৪৩৩ জন। [৪] দৈনিক প্রায় দুই লাখ মানুষ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ও প্রায় ৫০ হাজার মানুষ প্রথম ডোজ নিচ্ছেন। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন, বর্তমান হারে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হতে থাকলে মজুতে থাকা ভ্যাকসিন আগামী ১৫ দিনের মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে। [৫] তৃতীয় চালানের ৫০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন মার্চের শেষ সপ্তাহে দেশে আসার কথা থাকলেও দ্বিতীয় চালানের পর সেরামের কাছ থেকে আর কোনো ভ্যাকসিন পাওয়া যায়নি। [৬] বাংলাদেশে সেরামের স্থানীয় এজেন্ট বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) নাজমুল হাসান পাপন বলেন, সেরাম আমাদেরকে জানিয়েছে যে, তারা (ভ্যাকসিন) রপ্তানি করতে প্রস্তুত। কিন্তু, এজন্য ভারত সরকারের কাছ থেকে ছাড়পত্র প্রয়োজন। সে ছাড়পত্র তারা এখনো পায়নি।
[৭] স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত সেরাম ইন্সটিটিউটের সঙ্গে আলোচনা করছি। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমার ভারতের সেরাম ইন্সটিটিউটের পাশাপাশি চীনা সরকার ও রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা করছি। সম্পাদনা: তাপসী রাবেয়া




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]