• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]মে থেকে জুলাই, মাত্র তিন মাস ধৈর্য ধরে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করলেই বর্তমান টিকার সঙ্কট এড়ানো সম্ভব


[১]মে থেকে জুলাই, মাত্র তিন মাস ধৈর্য ধরে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করলেই বর্তমান টিকার সঙ্কট এড়ানো সম্ভব

আমাদের নতুন সময় : 04/05/2021

আনিস তপন: [২] স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে আলাপে জানা গেছে, প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন যারা নিয়েছেন, দ্বিতীয় ডোজ পাওয়া নিয়ে যাদের শঙ্কা দেখা দিয়েছে, তাদের বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে শিগগিরই একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। [৩] বিশেষজ্ঞদের মতামত, টিকার দ্বিতীয় ডোজ পাওয়া নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কারণ ১২ বা ১৬ সপ্তাহ পরেও দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিলে একই রকম কার্যকরি হবে। [৪] তাছাড়া অতি অল্প সময়ে গ্যাভি ভ্যাকসিন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বৃত্ত টিকার অংশ বিশেষ বাংলাদেশে আসছে। তাই দ্বিতীয় ডোজের জন্য অপেক্ষায় থাকা প্রায় ১৫ লাখ ব্যক্তির টিকা নির্ধারিত সময়ে পাবে। [৫]ধারণা করা হচ্ছে জুলাই শেষে বিশ্বে টিকার সঙ্কট থাকবে না। অগাস্ট-সেপ্টেম্বরে বরং টিকা উদ্বৃত্ত থাকবে। তাছাড়া আগামী জুলাই এরমধ্যে ভারতে ৯০ শতাংশ ভ্যাকসিনেশন (টিকা প্রদান) শেষ হয়ে যাবে। এরপর সেখানে আর টিকার সঙ্কট থাকবে না। [৭] এসব কারণে জুলাইয়ের পর বাংলাদেশে টিকার সঙ্কট থাকবে না। [৮] তাছাড়া বিশ্বে টিকা সঙ্কটের এই মূহুর্তে তাড়াহুড়া করলে বা ভ্যাকসিনের জন্য বেশি দৌড়-ঝাপ করলে অতিরিক্ত দামে কম পরিমান ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে। [৯] এর বাইরে আগামী অক্টোবরের মধ্যে দেশের কয়েকটি কম্পানিতে ভ্যাকসিন তৈরী হবে। সম্পাদনা: বাশার নূরু




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]