• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]শুকিয়ে যাচ্ছে পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ জলপ্রপাত ভিক্টোরিয়া ফলস [২]জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে তীব্র খরার মুখে আফ্রিকার দেশ জিম্বাবুয়ে


[১]শুকিয়ে যাচ্ছে পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ জলপ্রপাত ভিক্টোরিয়া ফলস [২]জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে তীব্র খরার মুখে আফ্রিকার দেশ জিম্বাবুয়ে

আমাদের নতুন সময় : 04/05/2021

সুমাইয়া ঐশী: [৩] দক্ষিণ আফ্রিকার জিম্বাবুয়ে ও জাম্বিয়ার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে এই জলপ্রপাত। এর সবচেয়ে প্রশস্ত অংশটির দৈর্ঘ্য ১.৭ কিলোমিটার এবং উচ্চতা ১০০ মিটার। প্রতি বছরই হাজার হাজার পর্যটক ছুটে আসেন এই সৌন্দর্য দেখতে। তবে ২০১৯ সালের শেষের দিক থেকে ভিক্টরিয়া জলপ্রপাতের দৃশ্য বদলেছে সম্পূর্ণভাবে। বিবিসি। [৪] ২০১৯ সাল ছিলো এপর্যন্ত আফ্রিকার তিনটি সবচেয়ে উষ্ণতম বছরগুলোর মধ্যে অন্যতম। এই সময়ে জিম্বাবুয়েতে দেখা দেয় মারাত্মক খরা। এতে শুকিয়ে গেছে এই বিশাল জলপ্রপাতের পানির প্রবাহ। এখন এখানে নেই আগের মতো পানির সেই গর্জন, নেই সবুজ। এখন ভিক্টরিয়া ফলস্ মৃতপ্রায় একটি জলধারা মাত্র, নিষ্প্রাণ পাথুরে অঞ্চল। এ থেকে সৃষ্ট নদীটিও এখন প্রায় ¯্রােতহীন। রয়টার্স, দ্য গার্ডিয়ান। [৫] ভিক্টোরিয়া ফলস্ শুকিয়ে যাওয়াকে বিশ্লেষকরা জলবায়ু পরিবর্তনের বড় উদাহরণ হিসেবে দেখছেন। এর ফলে প্রাকৃতিকসহ জিম্বাবুয়েতে নানা ধরনের প্রভাব পড়েছে। ভিক্টোরিয়া ফলস ছিলো একটি বড় পর্যটন কেন্দ্র। জলপ্রপাতটি শুকিয়ে যাওয়ায় ইতোমধ্যেই পর্যটকের আনাগোনায় বড় ধরনের পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে এই জলধারা থেকে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হওয়ায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘিœত হচ্ছে। পাশাপাশি খরার কারণে স্থানীয়দেরও ব্যাপক দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। [৬] চলতি শতাব্দির সবচেয়ে খারাপ খরার সম্মুখিন হয়েছে জিম্বাবুয়ে। ফলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে, এই খরার কারণে স্থায়ীভাবে বিলীন হয়ে যেতে পারে পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম জলপ্রপাত। সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]