• প্রচ্ছদ » » আপনি যতো ধনী দেশের নাগরিকই হন করোনা থেকে কখনোই মুক্তি পাবেন না, যতোক্ষণ পর্যন্ত বিশ্বের সব দেশের মানুষ মুক্তি না পাবে


আপনি যতো ধনী দেশের নাগরিকই হন করোনা থেকে কখনোই মুক্তি পাবেন না, যতোক্ষণ পর্যন্ত বিশ্বের সব দেশের মানুষ মুক্তি না পাবে

আমাদের নতুন সময় : 10/05/2021

জাহিদুর রহমান : আলোচিত ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট (ই.১.৬১৭) আসলেই অনেক বেশি সংক্রামক কিনা, সেটা আন্দাজ করার একটা ভালো ওপায় হলো নেপালের করোনা পজিটিভ কিছু নমুনা থেকে করোনা ভাইরাসের জেনোম সিকোয়েন্সিং করে দেখা। নেপালের চারপাশে ভারত এবং গত কয়েকদিনে নেপালে সংক্রমণ হার প্রায় ৫০ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্য দিকে তাদের দেশের লোকজন ভারত বা বাংলাদেশের মতো এতো বেশিও না আবার গণহারে স্বাস্থ্যবিধিও ভঙ্গ করেনি। সুতরাং এক্ষেত্রে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টের একটি ভ‚মিকা থাকার সমুহ সম্ভাবনা আছে। নেপালে অবশ্য ভ্যাকসিন দেওয়ার গতিও খুব কম। এখন পর্যন্ত শতাংশ মানুষকেও ভ্যাকসিন দেওয়া হয়নি। নেপাল সরকার ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক সাহায্য চেয়েছে। সাহায্য মানে শুধু নগদ ওষুধপত্র বা ভ্যাকসিন দেওয়া না। তাছাড়া নিজেদের স্বার্থেই (বিশেষ করে ভারত ও বাংলাদেশ) এখন নেপালের নমুনা সিকোয়েন্সিং করে দেখা দরকার। ১০০ নমুনা সিকোয়েন্সিং করলেও একটা ধারণা পাওয়া যাবে। বাংলাদেশের প্রধান বৈজ্ঞানিক স্যারদের নিজেদের ল্যাবে সিকোয়েন্সিং করারই সামর্থ্য নেই। অন্য প্রতিষ্ঠানের মেশিনে সিকোয়েন্সিং করে নিজেদের নামে চালাতে হয়। তাদের কাছ থেকে দেশের মানুষই কিছু আশা করে না, নেপাল তো পরের বিষয়। এরকম ধারণাই তো তাদের ঊর্বর মস্তিষ্কে সৃষ্টি হবে না। কিন্তু ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাষ্ট্র, কিংবা কোনো আন্তর্জাতিক সংস্থা এই কাজটি করতে পারে। বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে শখানেক সিকোয়েন্সিং মেশিন দিলে আমরাও কিছু না কিছু কাজ করতে পারতাম! আপনি যতো ধনী দেশের নাগরিকই হোন, করোনা থেকে কখনোই মুক্তি পাবেন না, যতোক্ষণ পর্যন্ত বিশ্বের সব দেশের মানুষ মুক্তি না পাবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]