[১]টিকা সংরক্ষণে কোল্ড চেইন ম্যানেজমেন্টে সহায়তা দেবে কোভ্যাক্স

আমাদের নতুন সময় : 06/06/2021

শিমুল মাহমুদ: [২] অ্যাস্ট্রাজেনেকার ও সিনোফার্মের পর তৃতীয় টিকা হিসেবে বাংলাদেশে এসেছে ফাইজারের কোভিড-১৯ টিকা। আগামী জুলাইয়ের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র থেকে করোনাভাইরাসের ৭০ লাখ ডোজ টিকা পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশগুলো। এর মধ্যে বাংলাদেশ, নেপাল, ভিয়েতনামসহ পাঁচটি দেশ অগ্রাধিকার পাবে। [২] অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার ও সিনোফার্মের বাদে করোনার বাকি ভ্যাকসিন গুলো হিমাঙ্কের ২০ থেকে ৭০ ডিগ্রির নিচে রাখতে হয়। তাই দেশে টিকা সংরক্ষনে দরকার কোল্ড চেইন ম্যানেজমেন্ট। দেশে বিছিন্নভাবে কয়েকটি হাসপাতাল ছাড়া আর কোথাও এর ব্যবস্থা নেই। [৩] চিকিৎসাবিজ্ঞানী ড. লিয়াকত আলী বলেন, ২-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রাখার সক্ষমতা আমাদের আছে। কোভেক্স থেকে মর্ডানা কিংবা ফাইজারের টিকা আসলে আমাদের কোল্ড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম আরো বাড়াতে হবে। নয়তো টিকা সংরক্ষনে বিপাকে পরতে পারে বাংলাদেশ। [৪] দেশের এমন সময়ে পাশে থাকছে করোনা মোকাবিলায় বৈশিক উদ্যোগ কোভেক্স। কোল্ড চেইন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের জন্য এরি মধ্যে বিষয়টি নিশ্চিত করে সরকারকে চিঠিও দিয়েছে কোভেক্স। প্রযুক্তিগত সহায়তা দেবে গ্যাভি। সরঞ্জাম কিনা হবে ইউনিসেফ এর মাধ্যমে। পুরো প্রক্রিয়ায় খরচ হতে পারে ২৪ লাখ ৮২ হাজার ২৭৮ ডলার। যা সহায়তা হিসেবে বাংলাদেশকে দিবে কোভেক্স। [৫] স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, বিষয়টি আমাদের জন্য খুবেই ইতিবাচক। কারণ, ভবিষ্যতে বিভিন্ন ধরণের টিকা দেশে এলে এ ব্যবস্থাপনা খুবেই কাজে দিবে। তিনি বলেন, মাইনাস ৭০ ডিগ্রিতে রাখার মতো আমাদের ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম তেমন নেই। যা আছে খুবেই অল্প। সম্প্রতি ফাইজারের যে এক লাখ টিকা পেলাম সেটা আমরা পেয়েছি। পরবর্তিতে আবার টিকা আসলে সেটা রাখার জন্য বিশেষ ফ্রিজার সেটা থাকতে হবে। কোল্ড চেইনের জন্য যে সমস্ত




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]