• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]রাজধানীতে বিবাহবিচ্ছেদ ধারাবাহিক বাড়ছে [২]গত এক বছরে ৭০ শতাংশ আবেদনই নারীরা করেছেন, তাদের বেশিরভাগ স্বাবলম্বী


[১]রাজধানীতে বিবাহবিচ্ছেদ ধারাবাহিক বাড়ছে [২]গত এক বছরে ৭০ শতাংশ আবেদনই নারীরা করেছেন, তাদের বেশিরভাগ স্বাবলম্বী

আমাদের নতুন সময় : 13/06/2021

শিমুল মাহমুদ: [৩] ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ মে পর্যন্ত বিবাহবিচ্ছেদের আবেদন জমা পড়েছে ৫৪৮৭টি। এর মধ্যে ডিএনসিসিতে ২৮২৫টি। দুই সিটিতে গড়ে প্রতিদিন আবেদন করেছেন ৩৭ জন। [৪] মিরপুরের নিকাহ রেজিস্ট্রার বা কাজি মো. আমির হোসেন বলেন, আমার ১১ বছরের অভিজ্ঞতা বলছে, বিচ্ছেদের হার প্রতি বছরই বাড়ছে। শিক্ষিত মানুষরাই বেশি আবেদন করেছেন। [৫] বিচ্ছেদের কারণ হিসেবে বেশিরভাগে ক্ষেত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, পারস্পরিক সম্মানবোধের অভাব, পর্ন ও মাদকাসক্তি, সেক্সুয়াল অবজেক্টিফিকেশন, পরকীয়া, সংসারের প্রতি উদাসীনতা, যৌতুকের দাবিতে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন। [৬] ২০২০ সালের জুলাই মাসে ঢাকা দক্ষিণ সিটি এলাকায় ৮৭৮টি এবং উত্তর সিটিতে ৬৫৪টি তালাক হয়েছে। [৭] ডিএনসিসির অঞ্চল-৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল বাকী বলেন, স্বামী বা স্ত্রী যে-ই আবেদন করুক, আগে উভয়পক্ষকেই সমঝোতার নোটিশ দেয়া হয়। কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তারা সমঝোতায় যান না। দ্বিতীয়বার নোটিশ দিলেও উপস্থিত হন না। আইন অনুযায়ী, তালাক আবেদনের ৯০ দিনের মধ্যে সমঝোতা না হলে তা কার্যকর হয়ে যায়। [৮] জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. তাজুল ইসলাম বলেন, বিবাহবিচ্ছেদের মূল কারণ পারস্পরিক আস্থা আর নির্ভরতার সংকট। আধুনিক তথ্য-প্রযুক্তি এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম এই সংকটকে আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। চাকরিজীবীদের একটা অংশ পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ছে। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]