• প্রচ্ছদ » » তালেবানের উত্থানে এশিয়ার নিরাপত্তা বিঘিœত হওয়ার আশঙ্কা করছে ভারতীয় মিডিয়া ‘দ্য ওয়াল’ এবং ‘জেরুজালেম পোস্ট’


তালেবানের উত্থানে এশিয়ার নিরাপত্তা বিঘিœত হওয়ার আশঙ্কা করছে ভারতীয় মিডিয়া ‘দ্য ওয়াল’ এবং ‘জেরুজালেম পোস্ট’

আমাদের নতুন সময় : 14/07/2021

রাশিদ রিয়াজ : ভারতের মিডিয়া দ্য ওয়ালের এক প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করে বলা হয়েছে, মার্কিন সৈন্যের থেকে বিপুল সংখ্যক স্নাইপার রাইফেল, হ্যান্ড হেল্ড রেডার এবং শোল্ডার ফায়ারড মিসাইল কেড়ে নিয়েছে তালেবান। সেই অস্ত্র এবার জম্মু-কাশ্মীরের জঙ্গিদের হাতে আসতে পারে। কিছুদিন আগেই কাশ্মীরে জৈশ ই মহম্মদ ও লস্কর ই তৈয়বার জঙ্গিদের কাছে আমেরিকায় নির্মিত এম ফোর রাইফেল পেয়েছেন ভারতের নিরাপত্তারক্ষীরা। তার ওপরে আফগানিস্তানে যদি তালেবানরা জয়ী হয়, তাহলে কাশ্মীর বাদে ভারতের অন্যান্য অঞ্চলে, বিশেষত উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে জঙ্গিরা তৎপর হয়ে উঠতে পারে। ভারতীয় এই মিডিয়ার বিশ্লেষণ তালেবানের উত্থানে বিপদে পড়তে পারে রাশিয়াও। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো বলছে, আর কয়েক মাসের মধ্যে কাবুল দখল করে নিতে পারে তালেবান। সেক্ষেত্রে মধ্য এশিয়ার নিরাপত্তা পরিস্থিতি বিঘিœত হবে। তালেবানকে নিয়ে উদ্বিগ্ন ইরান ও পাকিস্তান। কারণ আফগানিস্তান থেকে আসতে পারে লাখ লাখ উদ্বাস্তু স্রোত। মস্কোয় তালেবানের এক প্রতিনিধিদল দাবি করেছে, আফগানিস্তানের ৩৯৮টি জেলার মধ্যে ২৫০টি তাদের দখলে। কান্দাহারের পর গজনী তারা ঘিরে রেখেছে। কাবুল ও কান্দাহারের মাঝে মুল রাস্তাটাই গজনীর।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানের প্রতিবেশী কোনো দেশে ঘাঁটি স্থাপন করে তালেবানদের নিয়ন্ত্রণে আনতে না পারলে লিবিয়ায় ন্যাটোর বিমান হামলার মতো পদক্ষেপ নেবে বলেছে পেন্টাগন। জেরুজালেম পোস্ট বলছে, তালেবানদের উত্থানে হামাস ও হিজবুল্লাহ আরও সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে। অস্ত্র সহায়তাও পেতে পারে হামাস ও হিজবুল্লাহ। কাবুল সরকার পাকিস্তানকে তালেবানদের গোপণে প্রশিক্ষণসহ কোনো ধরনের সহায়তা না দেওয়ার আহŸান জানিয়েছে। তালেবানদের সঙ্গে লড়াইয়ে পিছু হটে কয়েকশত আফগান সেনা তাজিকিস্তান ও কাজাখিস্তানে পালিয়েছে। আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় কুন্দুজ প্রদেশে তালেবান ও আফগান সেনারদের যুদ্ধ তীব্র আকার ধারণ করার পর ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গেছে প্রায় ১২ হাজার মানুষ। এধরনের উদ্বাস্তু ¯্রােত ফের আফগানিস্তানের প্রতিবেশি দেশগুলোতে লাখ লাখ শরণার্থীতে পরিণত হতে পারে। আফগানিস্তানের সঙ্গে চীনের একমাত্র সীমান্ত শহর ‘ওয়াখান’ তালেবানদের দখলে চলে গেছে। ওই এলাকায় ওয়াখজির পাস চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোরের প্রান্তসীমায় অবস্থিত। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন আফগানিস্তানে তাদের লক্ষ্য পূরণ হয়েছে তবে তা কি খোলাসা করে বলেননি। চীন এশিয়ায় বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যে ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা নিয়ে আগাচ্ছে তালেবানদের উত্থানে তাও বিঘিœত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে বলে মনে করছেন আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]